default-image

করোনা পরিস্থিতির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠানগুলোকে আর্থিক সহায়তা দিতে উদ্দীপনা প্যাকেজের ঘোষণা আগেই দিয়েছিল ডোনাল্ড ট্রাম্প সরকার। সাধারণভাবে এ ধরনের প্যাকেজ থেকে অর্থ সাহায্য দেওয়া হয় একটি নির্দিষ্ট পদ্ধতি ব্যবহার করে। এ ক্ষেত্রে একটি নির্দিষ্ট ব্যাংক হিসাব থেকেই এই আর্থিক প্রণোদনা দেওয়া হয়। কিন্তু এবার এই প্যাকেজ থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ তামাক চাষিদের দেওয়া হবে আলাদা একটি ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে। এ নিয়ে এরই মধ্যে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়েছে।

মার্কিন কৃষি বিভাগ (ইউএসডিএ) ১৮ সেপ্টেম্বর জানায়, বৈশ্বিক মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের জন্য যে ১ হাজার ৪০০ কোটি ডলারের প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে কংগ্রেস, তার মধ্য থেকে ১০ কোটি ডলার দেওয়া হবে তামাক চাষিদের।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, এই পদক্ষেপের কারণে সবচেয়ে বেশি অর্থ যাবে নর্থ ক্যারোলাইনার কৃষকদের কাছে। কারণ, এই অঙ্গরাজ্যেই সবচেয়ে বেশি তামাক চাষ হয়। নর্থ ক্যারোলাইনাকে আবার আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ‘সুইং স্টেট’ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। গুরুত্বপূর্ণ এই অঙ্গরাজ্যে ১৫টি ইলেকটোরাল কলেজ রয়েছে। এ অবস্থায় তামাক চাষিদের জন্য বিশেষভাবে অর্থ বরাদ্দের মাধ্যমে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন নির্বাচনে বাড়তি সুবিধা নিতে চাইছে কিনা, তা নিয়ে তর্ক জমে উঠেছে।

বিজ্ঞাপন

বিষয়টি নিয়ে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হচ্ছে পৃথক ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমে এই আর্থিক প্রণোদনা বিলির চেষ্টার কারণে। এমনকি এ ধরনের ব্যাংক হিসাবের কথা আগে থেকে জানায়নি ইউএসডিএ। এর কারণ সম্পর্কে ইউএসডিএ রয়টার্সকে জানায়, নতুন অ্যাকাউন্ট নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। চলতি বছরের বসন্তেই এই অ্যাকাউন্টটি খোলা হয়েছে। তহবিল কার কাছে যাচ্ছে, তা শনাক্তের জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। গত মার্চে করোনাভাইরাস এইড, রিলিফ অ্যান্ড ইকোনমিক সিকিউরিটি (কেয়ারস) অ্যাক্ট কংগ্রেসে পাসের পর এ সম্পর্কিত তহবিল সহজে বিলির জন্যই এই নতুন ব্যাংক হিসাব তৈরি করা হয়েছে।

তবে এ বিষয়ে কৃষি বিভাগ ও সরকারি বিশ্লেষকেরা বলছেন, এমন পদক্ষেপ নতুন। সাধারণত জরুরি তহবিল কোন একটি সংস্থার মাধ্যমে বিলি করেন আইনপ্রণেতারা। এ ক্ষেত্রে ওই সংস্থার বিদ্যমান ব্যাংক হিসাবের মাধ্যমেই আর্থিক সাহায্য বণ্টনের কাজটি করা হয়।

কৃষি খাতে সরকারি ভর্তুকির অধিকাংশই বণ্টন করা হয় ১৯৩০ সালে প্রতিষ্ঠিত কমোডিটি ক্রেডিট করপোরেশনের (সিসিসি) মাধ্যমে। উৎপাদক পর্যায়ে সরাসরি আর্থিক সহায়তা বণ্টনের জন্য ইউএসডিএকে পূর্ণ কর্তৃত্ব দেয় সংস্থাটি। তবে ২০০৪ সালে হওয়া একটি আইনে তামাক চাষিদের সিসিসি তহবিল পাওয়ার পথ বন্ধ হয়ে যায়। ইউএসডিএ এখন নতুন ব্যাংক হিসাব তৈরির কারণ হিসেবে ওই আইনকে হাজির করছে। যদিও সিসিসি বলছে, কেয়ারস অ্যাক্টের মাধ্যমে যে ২ লাখ ৩০ হাজার কোটি ডলারের তহবিল গঠন করা হয়েছে, তাতে তামাক চাষিদের মধ্যেও তহবিল বণ্টনের অধিকার তাদের দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে অর্থনীতিবিদ ও আইন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ ধরনের তহবিল থেকে তামাক চাষিদের অর্থ বরাদ্দ দেওয়াটা ২০০৪ সালের আইন-বিরুদ্ধ, যা প্রশাসনিক স্বচ্ছতার প্রশ্ন এসে যায়।

কয়েকটি সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, গত এপ্রিলে যখন প্রথম কৃষি খাতে প্রণোদনা তহবিল ঘোষণা করা হয়, তখন তালিকায় তামাক খাত ছিল না। সে সময় আইনপ্রণেতারা ব্যক্তিগতভাবে ইউএসডিএর সঙ্গে এ ব্যাপারে কথা বলেন।

গত জুলাইয়ে টোব্যাকো গ্রোয়ারস অ্যাসোসিয়েশন অব নর্থ ক্যারোলাইনা, নর্থ ক্যারোলাইনা ফার্ম ব্যুরো ও কেনটাকি ফার্ম ব্যুরো করোনার কারণে চীনে রপ্তানি বন্ধ হওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত তামাক চাষিদের একটি তালিকা ইউএসডিএর কাছে পাঠায়।

টোব্যাকো গ্রোয়ারস অ্যাসোসিয়েশন অব নর্থ ক্যারোলাইনার নির্বাহী ভাইস প্রেসিডেন্ট গ্রাহাম বয়ড জানান, শুধু চীনে রপ্তানি বন্ধ হওয়ায় নর্থ ক্যারোলাইনার তামাক চাষিদের প্রায় ২০ কোটি ডলারের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে এত আলোচনার কারণ প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। তামাক চাষিদের জন্য আর্থিক সহায়তা বিলির ব্যবস্থাটি এমন সময় এমনভাবে করা হচ্ছে, যার সুফল পাবেন নর্থ ক্যারোলাইনার মতো ভোটের হিসাবে গুরুত্বপূর্ণ কিছু অঙ্গরাজ্যের কৃষকেরা। প্রত্যন্ত অঞ্চলে আবার রিপাবলিকান দলের সমর্থক বেশি। ফলে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন ভোটের হিসাব মাথায় রেখেই এ ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

মন্তব্য পড়ুন 0