default-image

হোয়াইট হাউসের অফিস ছাড়ার এক সপ্তাহের মধ্যেই সাবেক প্রেসিডেন্ট হিসেবে নতুন একটি অফিস খুলেছেন সদ্য সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘সাবেক প্রেসিডেন্টের অফিস’ খুলেছেন। এই অফিস থেকেই এখন ট্রাম্পের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হবে।

নিউইয়র্ক পোস্ট-এর এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। ২২ জানুয়ারি ফ্লোরিডার ট্রাম্প ইন্টারন্যাশনাল গলফ ক্লাবে ডিনারে উপস্থিত ছিলেন ট্রাম্প।তখন তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হয়, কী করবেন এখন? জবাবে তিনি বলেছিলেন, কিছু একটা করবেন, কিন্তু এখনই নয়। এর পরেই তাঁর ‘সাবেক প্রেসিডেন্টের অফিস’ খোলার খবর পাওয়া গেল।

বিজ্ঞাপন
সাবেক প্রেসিডেন্টের এই অফিস জনগণের সক্রিয়তার মাধ্যমে ট্রাম্প প্রশাসনের নানা এজেন্ডা বাস্তবায়ন করবে

ট্রাম্পের নতুন এই অফিস থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সাবেক প্রেসিডেন্টের এই অফিস থেকে ট্রাম্পের প্রতিনিধি ব্যবস্থাপনা, জনগণের কথা জানানো এবং দেশের স্বার্থে নানা কর্মকাণ্ড পরিচালিত হবে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, এই অফিস জনগণের সক্রিয়তার মাধ্যমে ট্রাম্প প্রশাসনের নানা এজেন্ডা বাস্তবায়ন করবে।

২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট হিসেবে শেষবারের মতো হোয়াইট হাউস ত্যাগ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওই দিন যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় ১১টা ৫৯ মিনিট ৫৯ সেকেন্ডে তাঁর প্রেসিডেন্সির মেয়াদ শেষ হয়। তারপরই নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন জো বাইডেন। এই অভিষেক অনুষ্ঠানের আগেই হোয়াইট হাউস ছাড়েন ট্রাম্প।

এদিকে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রতিনিধি পরিষদে গৃহীত অভিশংসন প্রস্তাবের বিচারপ্রক্রিয়া সিনেটে শুরু হওয়া এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। ২৫ জানুয়ারি প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার নিয়োজিত কংগ্রেসের অভিশংসন ব্যবস্থাপকেরা সিনেটে প্রস্তাবটির দলিল হস্তান্তর করেছেন। ডেমোক্র্যাট কংগ্রেসম্যান জ্যামই রাসকিন সিনেট ফ্লোরে অভিশংসন প্রস্তাব পাঠ করেছেন। নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির ভুয়া দাবি, নির্বাচনব্যবস্থাকে দুর্নীতিগ্রস্ত করার প্রয়াসসহ ক্যাপিটল হিলে হামলার জন্য সমর্থকদের উসকানি দেওয়ার বিবরণ রয়েছে ট্রাম্পের অভিশংসন প্রস্তাবে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন