default-image

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ঠিক আগের মুহূর্তে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ সময় কেউ কাউকে ছেড়ে আর কথা বলছেন না। যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে ব্যক্তিগত আক্রমণের ঘটনা তেমন না দেখা গেলেও এবারের পরিস্থিতি ভিন্ন। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শালীনতার দেয়াল আগেই ভেঙেছেন। ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনও এখন আর বসে নেই। প্রচারের শেষ মুহূর্তে এসে তীব্র পাল্টা জবাব দিতে শুরু করেছেন।

গতকাল শনিবার দুই প্রার্থীই একে অন্যকে আক্রমণ করেছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এদিন পুরোটাই ব্যয় করেছেন পেনসিলভানিয়ায়। চারটি পৃথক নির্বাচনী সমাবেশে যোগ দিয়েছেন তিনি। নির্বাচনে জয়ের জন্য এ রাজ্য উভয় প্রার্থীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। জো বাইডেন প্রথমবারের মতো সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে একযোগে নির্বাচনী প্রচারে যোগ দিয়েছেন মিশিগানে।

মিশিগান ও পেনসিলভানিয়ায় ট্রাম্পকে আটকে দিতে পারলে বাইডেনের জয় সহজ হয়ে উঠবে।

শনিবার পেনসিলভেনিয়া ও মিশিগানের নির্বাচনী সমাবেশের মঞ্চগুলো ব্যক্তিগত আক্রমণে সরগরম হয়ে উঠেছিল।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জো বাইডেনের মধ্যে ব্যক্তিগত সম্পর্ক কখনো ভালো ছিল বলে জানা যায়নি। নির্বাচনী প্রচারের শুরু থেকেই ট্রাম্প ‘স্লিপি বাইডেন’ বলে বিদ্রূপ করে আসছেন। এমন বিদ্রূপ তিনি অন্যান্য রাজনীতিকদের নিয়েও করে থাকেন। তাঁর কাছে হিলারি ক্লিনটন হচ্ছেন ‘ক্রুক হিলারি’।

বিজ্ঞাপন
বাইডেন বড় আকারের সানগ্লাস দিয়ে নিজেকে ঢেকে রাখেন, যাতে লোকজন তাঁর চেহারা দেখতে না পারে
প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

বাইডেন ঘরের বেসমেন্টে লুকিয়ে থাকেন ও পুরো পরিবারসহ দুর্নীতিতে নিমজ্জিত —এমনই আক্রমণ করে আসছেন ট্রাম্প। কোন প্রমাণ ছাড়া মার্কিন রাজনীতিবিদদের প্রতিপক্ষ এমন দুর্নীতিবাজ হিসেবেও ঢালাওভাবে বলতে তেমন শোনা যায় না।

শনিবার পেনসিলভানিয়ার নির্বাচনী সভায় ট্রাম্প জো বাইডেনকে বিদ্রুপ করে বলেন, প্লাস্টিক সার্জারি করে তিনি চেহারা পরিবর্তন করেছেন। কীভাবে প্লাস্টিক সার্জারি আরও ভালোভাবে করলে বাইডেনকে সুদর্শন দেখাত, তা নিয়েও তিনি বিদ্রূপাত্মক কথা বলেন। ট্রাম্প বলেন, বাইডেন বড় আকারের সানগ্লাস দিয়ে নিজেকে ঢেকে রাখেন, যাতে লোকজন তাঁর চেহারা দেখতে না পারে।

মিশিগানের মঞ্চে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন প্রতিপক্ষের বিদ্রুপের জবাবে বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের পোষা কুকুর। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি ট্রাম্পের কোন সম্মানবোধ নেই।

বাইডেন বলেন, সবাই জানে ট্রাম্পের পরিচয়; তিনি কেমন লোক। এবারে সবাইকে দেখিয়ে দিতে হবে আমরা কারা।

নির্বাচনের আগের দুই দিনে ডোনাল্ড ট্রাম্প মিশিগানে তিনটি নির্বাচনী সভায় যোগ দেবেন। জো বাইডেন রবি ও সোমবার প্রচার চালাতে পেনসিলভানিয়ায় থাকছেন। দুই প্রার্থীর শেষ মুহূর্তের প্রচারে সরগরম এই দুই রাজ্য।

ডোনাল্ড ট্রাম্প রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের পোষা কুকুর। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি ট্রাম্পের কোন সম্মানবোধ নেই।
প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বাইডেন
মন্তব্য পড়ুন 0