শীর্ষ ধনীর তালিকায়ও পিছিয়ে পড়লেন ট্রাম্প

বিজ্ঞাপন
default-image

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নির্বাচনের আর অল্প কিছুদিন বাকি। প্রধান দুই রাজনৈতিক দলের জাতীয় সম্মেলনের পরও জনমত জরিপে ডেমোক্রেটিক দল থেকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেনের চেয়ে পিছিয়ে আছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সবগুলো জনমত জরিপেই ট্রাম্পের পিছিয়ে থাকার খবর আসছে। আর এবারে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ ধনীদের তালিকায়ও অনেক পিছিয়ে আছেন ট্রাম্প।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন সাময়িকী ফোর্বস ৮ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের ৪০০ জন কোটিপতির ৩৯তম তালিকা প্রকাশ করেছে। তালিকার শীর্ষ স্থানটি আমাজনের প্রধান নির্বাহী জেফ বেজোসের দখলেই রয়েছে। গত তিন বছর ধরেই তিনি এই শীর্ষ স্থান দখল করে আছেন। বেজোসের মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১৭৯ বিলিয়ন ডলার। গত বছর এই তালিকার ২৭৫ নম্বরে ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবারে তা পিছিয়ে ৩৫২ নম্বরে স্থান পেয়েছেন তিনি।

গত বছর এই তালিকার ২৭৫ নম্বরে ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবারে তা পিছিয়ে ৩৫২ নম্বরে স্থান পেয়েছেন তিনি
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদনে বলা হয়, এই করোনা মহামারিতে অর্থনৈতিক সংকট সৃষ্টি হলেও যুক্তরাষ্ট্রের ধনীদের সম্পদের পরিমাণ অনেক বেড়েছে। এবারের তালিকায় ১৮ জন নতুন ধনীর নাম যুক্ত হয়েছে।

তালিকায় ট্রাম্পের পিছিয়ে পড়ার কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, ডোনাল্ড ট্রাম্পের রিয়েল এস্টেট ব্যবসা, বিভিন্ন দেশে তাঁর হোটেল ও রিসোর্ট রয়েছে। এই করোনাকালে ট্রাম্পের অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে আছে। এ কারণে তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ৩ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলার থেকে কমে হয়েছে ২ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। এ কারণেই তিনি শীর্ষ ধনীর তালিকার অনেক পেছনে স্থান পেয়েছেন।

এই করোনাকালে ডোনাল্ড ট্রাম্পের অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে আছে। এ কারণে তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ৩ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলার থেকে কমে হয়েছে ২ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ৪০০ জন কোটিপতির এই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছেন মাইক্রোসফটের কর্ণধার বিল গেটস। তাঁর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১১১ বিলিয়ন ডলার। ৮৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের সম্পত্তি নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। চতুর্থ স্থানে আছেন বার্কশায়ার হ্যাথওয়ে কোম্পানির সিইও ওয়ারেন বাফেট। তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ৭৩ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার। পঞ্চম স্থানে আছেন ল্যারি এলিসন। তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ৭২ বিলিয়ন ডলার। টেসলার প্রধান নির্বাহী ও প্রযুক্তি উদ্যোক্তা এলন মাস্ক আছেন তালিকার সপ্তমে। তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ৬৮ বিলিয়ন ডলার।

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছেন মাইক্রোসফটের কর্ণধার বিল গেটস। তাঁর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১১১ বিলিয়ন ডলার
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এই করোনাকালে ভিডিও কনফারেন্সের জন্য বিশ্বে জুমের ব্যবহার হয়েছে ব্যাপক। এ কারণে জুম ভিডিও কমিউনিকেশনসের প্রধান নির্বাহী এরিক ইউয়ানের সম্পত্তি বেড়েছে অনেক গুণ। তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ১১ বিলিয়ন ডলার। তালিকার ১৮ জন নতুন ধনীর মধ্যে তিনি অন্যতম। তাঁর স্থান তালিকার ৪৩ নম্বরে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন