যুক্তরাষ্ট্রে সাইফুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম সাইফুর রহমানের ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। ৫ সেপ্টেম্বর এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ, যুক্তরাষ্ট্র নানা আয়োজনে দিবসটি পালন করে।

এম সাইফুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনটি ভার্চুয়াল স্মরণ সভা, আলোচনা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। এ ছাড়া মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনায় নিউইয়র্ক, নিউজার্সি, কানেকটিকাট, লস অ্যাঞ্জেলেসের বিভিন্ন মসজিদেও দোয়া মাহফিল ও মরহুমের নিজ এলাকায় অসহায় পরিবারের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে ভার্চুয়াল স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সাইফুর রহমান শুধু সিলেটের নয়, বাংলাদেশের গৌরব। একজন খাঁটি দেশপ্রেমিক, নিবেদিত প্রাণ এ কর্মবীর বিরামহীনভাবে দেশের জন্য নিজেকে নিয়োজিত রেখেছিলেন। তিনি সমগ্র বাংলাদেশের উন্নয়নে যে ভূমিকা রেখেছেন, তা স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ, যুক্তরাষ্ট্রের সভাপতি লায়েকুল হাসান তরফদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আহবাব চৌধুরীর সঞ্চালনায় ভার্চুয়াল স্মরণসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সংগঠনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক সাবেক এমপি ও সাইফুর রহমানের বড় ছেলে এম নাসের রহমান, বিএনপির উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, বিএনপির কেন্দ্রীয় সমবায় সম্পাদক জি কে গৌস, জাসাস কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অভিনেতা হেলাল খান, বিএনপি নেতা কাইয়ুম চৌধুরী, জিল্লুর রহমান, ফয়জুল করিম, মিজানুর রহমান, মিফতা সিদ্দিকি, মনজুর আহমদ চৌধুরী, সৈয়দ জুবায়ের আলী, ফয়ছল চৌধুরী, অদুদ আলম প্রমুখ।

পুরো অনুষ্ঠানটি টাইম টিভি ও ইউএসএনিউজঅনলাইন ডটকমের ফেসবুক পেজ থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। একই দিন সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের ব্রঙ্কসের একটি ভেন্যুতে আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ, যুক্তরাষ্ট্রের সভাপতি লায়েকুল হাসান তরফদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আহবাব চৌধুরীর সঞ্চালনায় সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের সাধারণ সম্পাদক বিএনপি নেতা মনজুর আহমদ চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএসিসি প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এন মজুমদার, সংগঠনের উপদেষ্টা সুফিয়ান আহমদ চৌধুরী, বিএনপি নেতা মির্জা মামুনুর রশিদ, তারেক আহাদ চৌধুরী, জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশনের সহসাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন, সাংবাদিক এমদাদ চৌধুরী ও মাওলানা রশিদ আহমদ, কুলাউড়া সমিতি নিউজার্সির সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোদাব্বির চৌধুরী ও বড়লেখা জাতীয়তাবাদী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক প্রচার সম্পাদক মোতাহার হোসেন, সংগঠনের সহসভাপতি মোক্তাদির হোসেন, সৈয়দ এনাম আহমদ, মানিক আহমদ, রেজাউল আজাদ ভূঁইয়া, সহসাধারণ সম্পাদক শাহ কামাল উদ্দিন, খলিলুর রহমান, জুহেল খান, জিল্লুর রহমান খান, কোষাধ্যক্ষ রিপন মিয়া, ছাত্রনেতা শাহবাজ আহমদ, সোহেল আহমদ, শাহ মামুন আহমদ প্রমুখ।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহসভাপতি ওবায়দুল হক, লিয়াকত আলী, ইকবাল হোসেন, আবুল কালাম, আবদুল মোহিত, সহসাধারণ সম্পাদক শাহ জাবের আহমদ, সালেহ চৌধুরী, সাইফুল ইসলাম পাঠান, অহিদুজ্জামান নিলু, হাবিবুর রহমান, আলমগীর কবির, চৌধুরী মোমিত তানিম প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে কোরআন থেকে তিলাওয়াত করেন সৈয়দ গৌসুল হোসেন। মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন বিএমএমসিসি ইসলামিক স্কুলের অধ্যক্ষ ও সংগঠনের সহসভাপতি মাওলানা রশিদ আহমদ। অনুষ্ঠানে সাইফুর রহমানের স্ত্রী দোররে সামাদ রহমান ছাড়াও বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমদ, বাংলাবাজার জামে মসজিদের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন, মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক নোমান আহমদসহ সম্প্রতি নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। অনুষ্ঠানে কমিউনিটির বিপুলসংখ্যক ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ, যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে মরহুমের কবর জিয়ারত, দোয়া মাহফিল ও নিজ এলাকার ৫০০ অসহায় পরিবারের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয় ওই দিন।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের ৫ সেপ্টেম্বর এম সাইফুর রহমান মৌলভীবাজারের নিজ বাড়ি বাহারমর্দন থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আশুগঞ্জের খড়িয়ালা নামক স্থানে এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন