default-image

নির্বাহী আদেশে মুসলিমপ্রধান দেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে কড়াকড়ি আরোপ করে জারি ট্রাম্পের আদেশ বাতিল করবেন জো বাইডেন। ক্ষমতা গ্রহণের প্রথম দিনেই এমন কয়েকটি নির্বাহী আদেশ জারি করবেন বলে বাইডেন শিবির থেকে আভাস দেওয়া হয়েছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এখনো পরাজয় মেনে না নিলেও ক্ষমতার পালাবদলের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিস ক্ষমতা গ্রহণ করবেন ২০ জানুয়ারি। প্রথম দিনেই কিছু নির্বাহী আদেশ জারি করে ডোনাল্ড ট্রাম্পের নানা বৈরী নীতিমালা থেকে নিজেদের প্রকাশ্য অবস্থান জানান দেওয়ার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

প্রথম দিনের নির্বাহী আদেশের মধ্যে থাকতে পারে জলবায়ু নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের করা প্যারিস চুক্তিতে ফিরে যাওয়ার ঘোষণা। ট্রাম্প ঘোষণা দিয়ে এ চুক্তি থেকে সরে এসেছিলেন। প্রথম দিনের নির্বাহী আদেশে ডেফার্ড অ্যাকশন ফর চাইল্ডহুড এরাইভেলস প্রোগ্রামস নামের কর্মসূচিটি পুনর্বহাল করতে পারেন। শিশু অবস্থায় আমেরিকায় আসা বিপুলসংখ্যক অভিবাসীর অভিবাসনের পথ রুদ্ধ করে দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ক্ষমতায় এসেই নির্বাহী আদেশে মুসলিমপ্রধান কিছু  দেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ এবং অভিবাসন বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বিজ্ঞাপন

নির্বাহী আদেশ দিয়ে করা এসব আদেশ নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাহী আদেশ দিয়ে বাতিল করার ক্ষমতা রাখেন। বাইডেনের প্রচার শিবিরের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যমে এসব নিয়ে এর মধ্যেই প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে বলে জানানো হয়েছে।

কোভিড-১৯ মহামারিতে বিপর্যস্ত বিশ্ব জনস্বাস্থ্য সংকটের চরম এ সময়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে বিচ্ছিন্ন করার ঘোষণা দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের প্রথম দিনেই এ নিয়ে ট্রাম্পের ঘোষণাটি বাতিল করতে পারেন।

জো বাইডেন-কমলা হ্যারিস ক্ষমতা গ্রহণের পর দীর্ঘ মেয়াদের রাজনৈতিক বিতর্ক কোন পর্যায়ে যাবে, এ নিয়ে এখনই কেউ শঙ্কা প্রকাশ করতে ইচ্ছুক নন। যদিও দলের মধ্যেই এখন উদারনৈতিক ও বনেদি ডেমোক্র্যাটদের বিরোধ চরমে। অভিবাসন, জলবায়ুসহ নানা বিষয় নিয়ে এসব বিতর্কে শিগগির সরগরম হয়ে উঠবে যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতি। এর আগেই ক্ষমতা গ্রহণের পরপরই জো বাইডেন নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে চাপে থাকা বহু মানুষের কাছে একটা সহনশীল বার্তা দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

মন্তব্য পড়ুন 0