default-image

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে মিশিগান অঙ্গরাজ্যের সুপ্রিম কোর্টে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে রিপাবলিকান পার্টি আরেকটি নতুন মামলা করেছে।

২৬ নভেম্বর মিশিগানের গভর্নর গ্রিচেন হুইটমার, সেক্রেটারি অব স্টেট জোসলিন বেনসন ও স্টেট ক্যানভাসারস বোর্ডের চেয়ারম্যান জেনেট ব্র্যাডশোর বিরুদ্ধে এই মামলা করা হয়েছে।

৫৪ পৃষ্ঠার এই মামলার নথি থেকে জানা গেছে, বাদী পক্ষ আদালতকে নির্বাচনের ফল নিরীক্ষা, ব্যালটে অনিয়ম ও জালিয়াতির তদন্ত করতে এবং নির্বাচনে সাংবিধানিক বাধ্যতামূলক কাজ শেষ করার জন্য ৩ নভেম্বরের নির্বাচনী সামগ্রী আদালতের জিম্মায় নিতে বলা হয়েছে।

মামলায় আরও বলা হয়েছে, ওয়েইন কাউন্টির ডাকযোগে আসা ব্যালটের বৈধতা ও অভিযোগের পর্যালোচনা করতে একজন বিশেষ মাস্টার নিযুক্ত না করা পর্যন্ত সেক্রেটারি অব স্টেট এবং বোর্ড অব স্টেট ক্যানভাসারদের নির্বাচনী ফলের চূড়ান্ত শংসাপত্র প্রদান থেকে বিরত রাখতে আদালতকে অনুরোধ করা হয়।

বিজ্ঞাপন
মামলায় ওয়েইন কাউন্টির ডাকযোগে আসা ব্যালটের বৈধতা ও অভিযোগের পর্যালোচনা করতে একজন বিশেষ মাস্টার নিযুক্ত না করা পর্যন্ত সেক্রেটারি অব স্টেট এবং বোর্ড অব স্টেট ক্যানভাসারদের নির্বাচনী ফলের চূড়ান্ত শংসাপত্র প্রদান থেকে বিরত রাখতে আদালতকে অনুরোধ করা হয়

এ মামলায় ১২ জনেরও বেশি ব্যক্তি হলফনামায় উল্লেখ করেছেন, ডেট্রয়েটের টিসিএফ সেন্টারে ভোট গণনায় জিওপি ভোট চ্যালেঞ্জারদের পর্যবেক্ষণ থেকে বিরত রাখা হয়েছে এবং ডাকযোগে আসা ব্যালট গণনায় যথেষ্ট অনিয়ম হয়েছে।

এদিকে মিশিগান রাজ্যের সিনেট কমিটি এবং সেক্রেটারি অব স্টেট জোসলিন বেনসন ঘোষণা দিয়েছেন, ডেট্রয়েটের টিসিএফ সেন্টারে ভোট গণনায় যে সমস্যা দেখা দিয়েছিল, আগামী সপ্তাহে সেই প্রতিবেদনের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

মামলা দায়েরের একদিন পর ২৭ নভেম্বর ডোনাল্ড ট্রাম্প আবার ডেট্রয়েটে ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন। তিনি জোর দাবি জানিয়েছেন যে, তিনি এখানে জিতেছেন। তাঁর অভিযোগ, মিশিগান অঙ্গরাজ্যের ডেট্রয়েটে প্রকৃত ভোটারের চেয়ে অধিক সংখ্যক মানুষ ভোট দিয়েছেন।

ইতিমধ্যে মিশিগানের বোর্ড অব ক্যানভাসাররা নির্বাচনের ফল প্রত্যয়ন করায় সরকারিভাবে জো বাইডেন এখানে নির্বাচিত হয়েছেন। কিন্তু ট্রাম্প ও তাঁর সমর্থকেরা এখনো মামলা বা অন্য কোনো প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জয় পাওয়ার আশা করছেন।

মন্তব্য করুন