default-image

মিশিগান অঙ্গরাজ্যের আপিল আদালতে গতকাল শুক্রবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আরেকটি মামলা খারিজ হয়েছে। আপিল আদালতে ২-১ ভোটে মামলাটি খারিজ হয়। ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচার কর্মকর্তারা নির্বাচনী ফলাফলকে চ্যালেঞ্জ করে মিশিগানের একটি আপিল আদালতে আবেদন করেছিলেন।

বিচারক স্টিফেন বোরেলো ও অ্যামি রোনায়েন ক্রাউস মামলাটি খারিজের পক্ষে মত দেন। অন্য বিচারক প্যাট্রিক মিটার খারিজের বিপক্ষে মত দেন। তাঁর যুক্তি ছিল, এখনো ইলেকটোরাল কলেজ ভোট একত্রিত করা হয়নি এবং কংগ্রেস এখনো বিষয়টি নিয়ে বিবেচনার জন্য আলোচনার আহ্বান জানায়নি।

এর আগে আইনগত ভিত্তি ও প্রমাণের অভাবে নিম্ন আদালতে মামলাটি খারিজ হয়েছিল। ট্রাম্প ও তাঁর সমর্থকেরা ভোটে অনিয়ম ও জালিয়াতির অভিযোগ তুলে মিশিগানে একাধিক মামলা করেছিলেন। কিন্তু প্রমাণের অভাবে অধিকাংশ মামলা খারিজ হয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

ভোটের পর থেকেই ট্রাম্প, তাঁর আইনজীবী ও মিত্ররা মিশিগানে ভোটে কারচুপি ও অ্যাবসেন্টি ব্যালটে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ আনে। কিন্তু এ পর্যন্ত তারা তাদের অভিযোগের সমর্থনে কোন প্রমাণ দেখাতে পারেনি।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী রুডি জুলিয়ানি মিশিগানে ৩ লাখ অবৈধ ব্যালট পাওয়ার দাবি করেছিলেন। কিন্তু ২ ডিসেম্বর মিশিগান হাউস ওভারসাইট কমিটির শুনানিতে ৩ লাখ অবৈধ ব্যালটসহ ও ব্যাপক অনিয়মের কোনো প্রমাণই হাজির করতে পারেননি। মিশিগানে এক লাখ ৫৪ হাজার ভোটের ব্যবধানে বাইডেন ট্রাম্পকে পরাজিত করেন এবং স্টেট ক্যানভাসাররা ইতিমধ্যে ভোটের ফলাফল প্রত্যয়ন করেছেন।

মন্তব্য করুন