default-image

মিশিগানের ওয়েইন কাউন্টি ডিস্ট্রিক্ট-৩ থেকে কমিশনার পদে প্রার্থী হতে নির্বাচন করছেন বাংলাদেশি-আমেরিকান মোহাম্মদ কামরুল হাসান। তিনি হ্যামট্রাম্যাক সিটির বর্তমান কাউন্সিলম্যান। তিনবার তিনি এই পদে জয়ী হয়েছেন। এবারে ভোটারদের মূল্যবান ভোটের প্রত্যাশা করে, গত কয়েক মাস ধরে চষে বেড়াচ্ছেন তাঁর নির্বাচনী এলাকায়। মনোয়ন পেতে তিনি দলীয় ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন।

কামরুল হাসান বলেন, ‘ভালো চাকরি করেও এখন পর্যন্ত পুরোনো ও ছোট বাসায় থাকি। এখনও পেইড অফ করতে পারিনি, মর্টগেজ দিতে হয়। হ্যামট্রাম্যাককে ভালোবেসে এখনও এই শহরেই আছি। রাজনীতি আমাকে নিঃস্ব করেছে।' তিনি বলেন, ভোটের মাধ্যমে একজন ভোটার তাঁর এলাকার কিংবা দেশের জন্য যোগ্য দায়িত্বশীল বা প্রতিনিধি নির্বাচিত করে থাকেন। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশি-আমেরিকানরা এক হয়ে তাঁদের একজন দায়িত্বশীল প্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন বলে তিনি মনে করেন।

কামরুল হাসান আরও বলেন, 'এখন অনেকেই রাজনীতিতে আসেন অর্থ কামানোর ধান্দায়। আমার সে চিন্তা আগেও ছিল না, এখনও নেই। শুধু এলাকার উন্নয়নে কাজ করতে চাই। আইন শৃঙ্খলা, রাস্তাঘাট ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ইত্যাদির উন্নয়ন ও সংস্কার প্রয়োজন। যোগ্যতার দিক দিয়ে আমি আমার প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে কোনো অংশে কম নই। আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে আপনাদের অধিকার আদায় করুন। মিশিগানের হ্যামট্রাম্যাক ও ডেট্রয়েট সিটিতে বাংলাদেশের অধিকাংশ অভিবাসী বসবাস করেন। আমি মনে করি, আমাদের বাংলাদেশি ভোটাররা যদি সার্বিক সহযোগিতা করেন, যথাযথ নিয়ম অনুসরণ করে সঠিক সময়ে এবং ঠিকমত ভোট দেন তাহলে আমাদের বিজয় হবে।' এ কারণে দলীয় প্রার্থী হিসেবে তাঁকে মনোনীত করার জন্য ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0