বাংলাদেশে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশকে করোনা সংক্রমণের ‘অত্যধিক উচ্চ ঝুঁকির’ দেশ উল্লেখ করে মার্কিন নাগরিকদের বাংলাদেশে সব ধরনের ভ্রমণ বাতিল করা উচিত বলে এক নির্দেশনায় জানিয়েছে দেশটির সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।

২ এপ্রিল সিডিসি তাদের ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা দিয়েছে। ওই নির্দেশনায় মার্কিন নাগরিকদের বিশ্ব ভ্রমণে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

ওই নির্দেশনায় বিশ্বের দেশগুলোকে চারটি আলাদা তালিকায় ভাগ করা হয়েছে। করোনা সংক্রমণের মাত্রার ভিত্তিতে স্বল্প, মধ্যম, উচ্চ ও অত্যধিক উচ্চ শ্রেণি তৈরি করা হয়েছে। এতে বাংলাদেশকে রাখা হয়েছে অত্যধিক উচ্চ সংক্রমণের দেশগুলোর শ্রেণিতে। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে একই শ্রেণিতে আছে পাকিস্তানও। ভারত ও শ্রীলঙ্কা আছে উচ্চ সংক্রমণের দেশগুলোর শ্রেণিতে। এ ছাড়া নেপাল মধ্যম সংক্রমণ ও ভুটান স্বল্প সংক্রমণের দেশের শ্রেণিতে রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সিডিসি বলছে, মার্কিন নাগরিকদের বাংলাদেশে ভ্রমণ বাতিল করা উচিত। কারণ এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ সফর করলে পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া মার্কিন নাগরিকেরাও করোনায় সংক্রমিত হতে পারেন।

তবে সিডিসি জানিয়েছে, এই পরিস্থিতিতে কাউকে যদি বাংলাদেশ ভ্রমণ করতেই হয়, তবে তাঁকে অবশ্যই করোনার টিকার পূর্ণ ডোজ নিতে হবে। পাশাপাশি সে দেশে সবাইকে মাস্ক পরতে হবে। যেকোনো ধরনের সমাবেশ ও ভিড় এড়িয়ে চলতে হবে এবং অন্য মানুষ থেকে অন্তত ছয় ফুট দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন