বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বন্যার পর ক্ষতিগ্রস্ত অনেকেই জরিমানার ভয়ে সাহায্যের জন্য আবেদন করতে ভয় পাচ্ছেন। নগরের মেয়রের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বেসমেন্ট অবৈধভাবে বসবাসের জন্য ব্যবহার করা হলেও এ নিয়ে কোনো জরিমানা এ বছর আরোপ করা হবে না।

মেয়র বলেছেন, গত সপ্তাহের ভয়াবহ বৃষ্টিপাত ও বন্যার মধ্য দিয়ে লোকজনের ওপর দুর্যোগ নেমে এসেছে। এমন বাস্তবতায় জরিমানা আরোপ করে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনকে আরও বেশি সমস্যায় ফেলার কোনো ইচ্ছা নগর কর্তৃপক্ষের নেই। নিউইয়র্কে বেসমেন্টে বসবাসের বিষয়টি নিয়ে নগরকে নতুন করে ভাবতে হচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। এমন কোনো পরিস্থিতির সৃষ্টি করা হবে না, যেখানে লক্ষাধিক লোক; যারা বেসমেন্টে বসবাস করে, তাদের কোনো থাকার জায়গা থাকবে না।

নিউইয়র্ক নগরের সড়ক পথ থেকে ১৪০০টির বেশি গাড়ি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অবস্থা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে মেয়র জানিয়েছেন। ৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নগর থেকে ৯০০০ টনের বেশি বন্যাজনিত আবর্জনা পরিষ্কার করা হয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ৭ সেপ্টেম্বর নগরের বন্যা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন। ফেডারেল ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট (ফেমা) তাদের ওয়েবসাইট এবং হটলাইনের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনের সাহায্যের আবেদন গ্রহণ করছে। রেডক্রস ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনকে ৫০০ ডলার করে অনুদান প্রদান করছে। ফেমার পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির মালিকেরা বিমার মাধ্যমে সংরক্ষিত নয় এমন ক্ষয়ক্ষতির জন্য ৩৬ হাজার ডলার পর্যন্ত অনুদান প্রদান করবে। এ অনুদান ফেরত দিতে হবে না। অনুদান ছাড়াও বাড়ির মালিকদের জন্য স্বল্প সুদে ফেডারেল তহবিল থেকে ঋণ গ্রহণ করারও সুযোগ দেওয়া হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন