default-image

যুক্তরাষ্ট্রের লেভার ডিপার্টমেন্ট জুন মাসে বলেছে, তাদের কাছে ৩০ লাখ চাকরি হারানো মানুষের আবেদন এসেছে। তার মধ্যে ১৮ লাখ সরাসরি করোনায় চাকরি হারিয়েছে। সরকারি বেকার ভাতা ৬০০ ডলার থেকে ৩০০ ডলারে নেমে এসেছে। এই অর্থে ঘর ভাড়া দেওয়া তো দূরের কথা, ঘরের চুলাও জ্বলবে না। আর সংসারে সন্তান থাকলে তো কথাই নেই। বেকার মানুষেরা নিশ্চয়ই নানা জায়গায় চাকরি খুঁজছেন। করোনা পরবর্তী সময়ে যারা চাকরি হারিয়েছেন, আবার চাকরিতে যোগ দিতে চাচ্ছেন আজকের এই লেখা তাদের জন্য।

যুক্তরাষ্ট্রের ডাক বিভাগের সব কটি জিপ কোডেই মিনিমাম ২০ থেকে ৫০ ডলার বেতনে লোক নিচ্ছে। কিছু কিছু পোস্টে আরও বেশি বেতন অফার করা হচ্ছে। এখানে আপনার অভিজ্ঞতার দরকার পড়বে না। এবারের জাতীয় নির্বাচনে কোভিডের কারণে প্রচুর মানুষ ডাকযোগে ভোট দিচ্ছে। তাই নির্বাচনের আগে ও পরে তাদের অনেক জনবল লাগবে। আপনি যেকোনো জিপ কোড থেকেই আবেদন করতে পারবেন।

আর করোনার কারণে পৃথিবীজুড়েই অনলাইনে কেনাকাটা বেড়ে গেছে। তাই, শুধু সরকারি পোস্ট অফিসেই নয়, সব ধরনের পোস্টাল সার্ভিস যেমন ইউপিএস (UPS), ফেডেক্স, (FEDEX), ডিএইচএল (DHL), ইউএসপিএস (USPS)—এসব কোম্পানি সপ্তাহে ৭ দিন ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকে এবং তারাও জনশক্তি নিয়োগ করছে।

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে খাবার থেকে শুরু করে সবকিছুই অনলাইনে কেনাকাটা করেন বেশির ভাগ মানুষ। আমাজন হলো বিশ্বের একমাত্র অনলাইন ব্যবস্থা, যা বিশ্বে এক নম্বরে অবস্থান করছে। আমাজনের বিভিন্ন শাখায় কোভিড পরবর্তী প্রচুর লোক নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এখানে আপনার আগের অভিজ্ঞতার কোনো প্রয়োজন পড়বে না। শুধু সাহস করে একবার আবেদন করুন। তারাও ঘণ্টায় ২০ ডলারের বেশি বেতন দিচ্ছে।

আমাজনের কাজের জন্য আপনার পূর্ব অভিজ্ঞতার দরকার নেই। অনলাইনে আবেদন করতে পারেন।

আর এই শহরের সব হাসপাতাল, নার্সিংহোম, সিনিয়র সেন্টার, ডাক্তারের চেম্বার—সব জায়গায় প্রচুর খালি পদ তৈরি হয়েছে। শুধু খালি পদ নয়, কোভিডের কারণে নতুন নতুন পদ তৈরি হয়েছে। আপনি হয়তো ভাবছেন, আমি তো নার্স বা ডাক্তার নই, তারা আমাকে নিবে কেন? একটা হাসপাতালে ডাক্তার–নার্স ছাড়াও নানা কাজ থাকে। হাসপাতালের অফিস ডেস্ক, অনুসন্ধানী ডেস্ক, মালপত্র রিসিভ, ক্লিনিং সার্ভিস ছাড়াও ভিন্ন ভিন্ন পদে লোক নিচ্ছে। তাদের স্টোর রুম, ডিসট্রিবিউশনসহ নানা কাজের জায়গা আছে। কোভিডের কারণে হাসপাতাল বা নার্সিংহোমগুলোতে ডাক্তার–নার্স বাদেও অনেক অনেক কাজের পদ সৃষ্টি হয়েছে। তাড়াতাড়ি আবেদন করুন। সম্ভব হলে আপনার পাশের হাসপাতালে যোগাযোগ করুন। এসব পদ ভারতীয়, পাকিস্তানি ও গায়ানিজ কমিউনিটির মার্কিনরা দখল করে নিচ্ছে। একটু মাথা খাঁটিয়ে অনলাইনে আবেদন করতে পারেন।

আর সব ধরনের ওষুধ কোম্পানি লোক নিচ্ছে। লং আইল্যান্ড, নিউজার্সিসহ অন্যান্য নগরের ওষুধ কারখানায় জনবল নিয়োগ চলছে। সেখানেও আপনার খুব একটা অভিজ্ঞতার প্রয়োজন পড়বে না।

ওয়্যারহাউস কালেকটর নামে সব ধরনের ওয়্যারহাউস কোম্পানি লোক নিচ্ছে। এখানেও ঘণ্টায় ১৭ ডলারের বেশি পারিশ্রমিক দেওয়া হচ্ছে।

নগরের স্কুলগুলোতে শিক্ষা বিভাগে নতুন নতুন পদ তৈরি হয়েছে। শিক্ষক ছাড়াও টিচার হেলপার হিসেবে জুনিয়র–সিনিয়র অনেক নতুন পদ তৈরি হয়েছে। ঠিক তেমনই সিটির স্কুলে বেবি সিটিং বিভাগে করোনার কারণে এক বাচ্চার জন্য একজন করে শিক্ষক নিয়োগ দিচ্ছে। জুনিয়র, প্রি–জুনিয়র পদে বাচ্চাদের দেখাশোনার জন্য নতুন পদ তৈরি হয়েছে। আপনারা যারা এখনো ঘরে বসে আছেন, আপনার আশপাশের যেকোনো স্কুল, বেবি সিটিং, সিনিয়র সেন্টারে ঢুঁ মারতে পারেন। ভালো বেতনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান লোক নিয়োগ দিচ্ছে।

সরকারি সাহায্যের আশায় বসে থাকার দিন শেষ। এ দেশের সরকার জনগণকে অনেক দিয়েছে। এবার জনগণেরে দেওয়ার পালা, কীভাবে দেবেন সেটি ঠিক করুন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0