default-image

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকান ফেডারেশন অব টেলিভিশন অ্যান্ড রেডিও আর্টিস্ট (এএফটিআরএ) থেকে পদত্যাগ করেছেন।

গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলের হামলায় ইন্ধন দেওয়া ও নির্বাচন নিয়ে মিথ্যা তথ্য প্রচারের কারণে তাঁকে শীর্ষ মার্কিন শিল্পী সংস্থা এএফটিআরএ থেকে বহিষ্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। বহিষ্কার নিশ্চিত জেনে ট্রাম্প নিজেই ৪ ফেব্রুয়ারি তাঁর পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন।

সম্প্রতি ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের জবাব দিতে শিল্পী সমিতির একটি কমিটির সামনে উপস্থিত হতে তাঁকে চিঠি দিয়েছিল সমিতি।

এএফটিআরএ’র দীর্ঘ দিনের সদস্য ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার আগে তাঁকে তারকাদের সঙ্গে দেখা যেত। তিনি নিজেও ছিলেন শোবিজ সেলিব্রিটি।

বিজ্ঞাপন
default-image

পদত্যাগ পত্রে ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের সিনেমা জগতে তাঁর কিছু অভিনীত সিনেমার উল্লেখ করেছেন। সমিতির কার্যক্রম নিয়ে বিষোদ্‌গার করে ট্রাম্প লিখেছেন, এমন সমিতির কোনো কার্যক্রমের কথা তিনি জানেনই না। সমিতি থেকে বহিষ্কারের বিষয়টি তিনি তোয়াক্কাও করেন না বলেও উল্লেখ করেন।

হোম অ্যালোন-২, জুল্যান্ডার, টিভি শো স্যাটারডে নাইট লাইভ, অ্যাপ্রেনটিস-এসবের উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেছেন, শিল্প মাধ্যমে নিজের কাজ নিয়ে তিনি গর্ব বোধ করেন। তাঁর ক্ষমতায় আসার আগে কেবল নিউজগুলো মৃতপ্রায় হয়ে উঠেছিল। রাজনীতিতে যোগ দিয়ে তিনি এসব টিভি নেটওয়ার্কের ব্যবসা চাঙা করেছেন, হাজারো কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছেন। এর মধ্যে ‘ফেক নিউজ’ সিএনএনও রয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

শিল্পী সমিতি তার সদস্যদের, বিশেষ করে ট্রাম্পের জন্য কিছুই করেনি উল্লেখ করে তিনি বলেছেন, সমিতি বছরে বছরে কেবল চাঁদা নেওয়ার জন্য হাজির হয়েছে। শিল্পী সমিতির সঙ্গে তাঁর যুক্ত থাকার ইচ্ছা নেই।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের পদত্যাগ পত্র দিলেও এ নিয়ে এখনো এএফটিআরএ-এর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন