default-image

মার্কিন নির্বাচনে জালিয়াতির ভুয়া অভিযোগ তোলা ও এর প্রচারের দায়ে ফক্স নিউজ ও এর কয়েকজন উপস্থাপক এবং সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আইনজীবী রুডি জুলিয়ানি ও সিডনি পাওয়েলের বিরুদ্ধে ২৭০ কোটি ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা করেছে ভোট সম্পর্কিত প্রযুক্তি কোম্পানি স্মার্টম্যাটিক।

মামলায় স্মার্টম্যাটিক দাবি করেছে, ফক্স নিউজসহ সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো একযোগে যে অপপ্রচার চালিয়েছে, তাতে প্রতিষ্ঠানটির টিকে থাকাই হুমকির মুখে পড়েছে।

এ বিষয়ে স্মার্টম্যাটিকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী আন্তোনিও মুগিসা সিএনএনকে বলেন, ‘আমাদের হাতে আর কোনো বিকল্প নেই। আমাদের বিরুদ্ধে যে অপপ্রচার চালানো হয়েছে, তা আমাদের নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার মতো। এটা আমাদের অস্তিত্বের প্রশ্ন। আমাদের পদক্ষেপ নিতেই হবে।’

এ সম্পর্কিত মামলাটি করা হয়েছে নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য আদালতে। এতে রুডি জুলিয়ানি ও সিডনি পাওয়েলের সঙ্গে সঙ্গে ফক্স নিউজ ও এর উপস্থাপক লু ডবস, মারিয়া বার্টিরোমো ও জেনিন পিরোর বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যমূলকভাবে মিথ্যা ছড়ানোর অভিযোগ আনা হয়েছে। মামলায় বলা হয়েছে, নির্বাচনে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জোর করে পরাজিত করা হয়েছে মর্মে মিথ্যা ছড়ানো হয়েছে। নিজেদের পরাজয় ঢাকতে তাদের একটা খলনায়ক প্রয়োজন ছিল। এমন কাউকে দরকার ছিল, যাকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো যায়। ভালোর বিরুদ্ধে মন্দের সাদামাটা এক গল্পের প্লট দাঁড় করানো প্রয়োজন ছিল, যাতে সাধারণ মানুষের মধ্যে মন্দের বিরুদ্ধে ক্ষোভ জমা হয়। কোনো সত্যিকারের খলনায়ক না পেয়ে তারা স্মার্টম্যাটিককে খলনায়ক হিসেবে হাজির করার সিদ্ধান্ত নেয়।

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে ফক্স নিউজের মুখপাত্র এক বিবৃতিতে বলেন, ‘যেকোনো বিষয়ের পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন হাজির করার জন্য প্রতিটি দৃষ্টিকোণ থেকে বিশ্লেষণ হাজির করার ব্যাপারে ফক্স নিউজ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ২০২০ সালের নির্বাচন নিয়ে আমাদের প্রতিবেদনগুলো নিয়ে আমরা গর্বিত। এই ভিত্তিহীন মামলা আমরা বেশ জোরের সঙ্গেই লড়ব।

মামলাটির বিষয়ে দেওয়া এক প্রতিক্রিয়ায় সিডনি পাওয়েল সিএনএনকে বলেন, ‘আমি কোনো নোটিশ বা এই মামলার কোনো অনুলিপি আমি পাইনি। কিন্তু যতটুকু জানলাম তাতে এটিকে সত্য ও আইনের ধার না ধরে বামদের করা আরেকটি রাজনৈতিক মামলা বলেই মনে হচ্ছে।’

আর রুডি জুলিয়ানি তাঁর এ সম্পর্কিত বিবৃতিতে বলেন, স্মার্টম্যাটিকের এই মামলা আমার জন্য আরও অনুসন্ধানের দরজা খুলে দিয়েছে।’

এর আগে রুডি জুলিয়ানি ও সিডনি পাওয়েলের বিরুদ্ধে ডোমিনিয়ন ভোটিং সিস্টেমও মামলা করেছিল। ভুয়া ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তোলার কারণেই সেই মামলাটি করা হয়েছিল। জুলিয়ানি ডোমিনিয়নের করা মামলাটিকে ‘তাঁর বাক্‌স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপ’ বলে অভিযোগ করেছিলেন। আর পাওয়েল যথারীতি বলেছিলেন, ‘মামলাটি ভিত্তিহীন’।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন