default-image

যুক্তরাষ্ট্রে এক দিনে করোনার সর্বোচ্চ সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। ২৪ অক্টোবর দেশটিতে এক দিনে ৮৩ হাজার ৭১৮ জনের করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। করোনা মহামারি শুরুর সময় থেকে এটি এক দিনে দ্বিতীয়বারের মতো সর্বোচ্চ করোনা সংক্রমণের রেকর্ড।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রে আবার করোনার সংক্রমণ বাড়ছে। জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৮৫ লাখের বেশি মানুষ। আর করোনায় সংক্রমিত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ২৪ হাজার ৮৯১ জনের।

ইউনিভার্সিটি অব মিনেসোটার সেন্টার ফর ইনফেকশাস ডিজিজ রিসার্চ অ্যান্ড পলিসির পরিচালক মাইকেল অস্টারহোম বলেন, ‘দ্রুতই দৈনিক সংক্রমণ শনাক্তের সংখ্যা লাখ ছাড়াবে বলে মনে হচ্ছে। আগামী তিন-চার সপ্তাহের মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যাও উল্লেখযোগ্য হারে বাড়বে।’

নতুন করে করোনা সংক্রমণের হারে এই ব্যাপক বৃদ্ধির কারণ হিসেবে কর্মকর্তারা বলছেন, সামাজিক মেলামেশা, পারিবারিক নানা অনুষ্ঠান ইত্যাদি বেড়ে গেছে। একই সঙ্গে শীত আসছে। এ অবস্থায় সামাজিক ও পারিবারিক অনুষ্ঠানগুলো ঘরের ভেতরে করার ওপর জোর দিচ্ছে প্রশাসন।

মেরিল্যান্ডের গভর্নর চলতি সপ্তাহে বলেছেন, তাঁর অঙ্গরাজ্যে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার মূলে রয়েছে পারিবারিক নানা অনুষ্ঠান। নর্থ ক্যারোলাইনার কর্মকর্তারাও একই কথা বলছেন। অঙ্গরাজ্যটিতে ২৩ অক্টোবর রেকর্ডসংখ্যক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর কারণ হিসেবে অঙ্গরাজ্যটির কর্মকর্তারা সামাজিক ও ধর্মীয় নানা অনুষ্ঠানে জনসমাবেশকে দায়ী করেছেন।

বিজ্ঞাপন
আর ডোনাল্ড ট্রাম্প যতই বলুন না কেন বিশ্বের কারও কাছেই কোনো করোনা ভ্যাকসিন নেই; বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ বছর করোনা ভ্যাকসিন আসার সম্ভাবনা খুব কম

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অবশ্য বলেছেন, করোনাভাইরাস পরাজিত হলো বলে। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতি বলছে ভিন্ন কথা। জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যমতে, গত সপ্তাহে ৩৫টি অঙ্গরাজ্যে করোনা সংক্রমণ আগের সপ্তাহের তুলনায় বেড়েছে।

সিএনএন জানায়, নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যে ২৪ অক্টোবর ১ হাজার ৯৯৪ জন করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন, যা গত মে মাসের পর এক দিনে সর্বোচ্চ। ওই দিন নিউ জার্সিতে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আটজন। একই দিনে ফ্লোরিডায় নতুন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ৪৭১ জনের। মারা গেছে ৭৭ জন। চলতি মাসে এটি তৃতীয় ঘটনা, যেখানে এক দিনে চার হাজারের বেশি মানুষের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ল। একই দিনে পেনসিলভানিয়ায় সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৪৩ জনের; মারা গেছে ২৯ জন। সংক্রমণের এই হার গত এপ্রিলের সঙ্গে তুলনীয় বলে জানিয়েছে অঙ্গরাজ্যটির কর্তৃপক্ষ। আর মিশিগানে ওই দিন সংক্রমণ ধরা পড়েছে ৩ হাজার ৩৩৮ জনের, যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ।

২৪ অক্টোবর ইলিনয় অঙ্গরাজ্যে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৬ হাজার ১৬১ জনের, যা এখন পর্যন্ত এক দিনে সর্বোচ্চ। একই দিনে অঙ্গরাজ্যটিতে মারা গেছে ৬৩ জন কোভিড রোগী। অঙ্গরাজ্যটিতে গত ৯ দিনের মধ্যে ৬ দিনই চার হাজারের বেশি মানুষের শরীরে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

এদিকে নির্বাচন সামনে। আর ডোনাল্ড ট্রাম্প যতই বলুন না কেন বিশ্বের কারও কাছেই কোনো করোনা ভ্যাকসিন নেই; বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ বছর করোনা ভ্যাকসিন আসার সম্ভাবনা খুব কম। এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউটস অব হেলথের পরিচালক ফ্রান্সিস কলিনস সিএনএনকে বলেন, ‘বছরের শেষ নাগাদ একটি ভ্যাকসিন হয়তো আমরা পেতে পারি। কিন্তু একই সঙ্গে বলা প্রয়োজন, আমরা এমন কোনো ভ্যাকসিন হয়তো পাব না। এর জন্য সম্ভবত আরও দীর্ঘ সময় লাগবে। আশার বিষয় হলো যুক্তরাষ্ট্রের হাতে একাধিক ভ্যাকসিনের বিকল্প রয়েছে।’

মন্তব্য পড়ুন 0