default-image

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়ে গেছে। সম্প্রতি এক দিনে করোনা শনাক্তের নতুন রেকর্ডও হয়েছে এ দেশে। নিউইয়র্কের অবস্থাও দিন দিন নাজুক হচ্ছে। নিউইয়র্ক নগরের ৪০টি জিপকোডে ৪ শতাংশের বেশি হারে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে। এতে রাজ্যজুড়ে উৎকণ্ঠা ছড়িয়ে পড়ছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বিপজ্জনক হয়ে ওঠার কারণে নিউইয়র্ক নগরের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১৯ নভেম্বর থেকে আবার ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

মেয়র বিল ডি ব্লাজিও জানিয়েছেন, নগরে করোনা সংক্রমণের হার ৩ শতাংশ অতিক্রম করার কারণে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ‘থ্যাংকস গিভিং ডে’ পর্যন্ত নগরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই ছুটি অব্যাহত থাকবে।

নিউইয়র্ক ডেইলি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০ নভেম্বর নিউইয়র্ক সিটি হল থেকে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিউইয়র্ক নগরের ৪০টি জিপকোড এলাকায় ৪ শতাংশের বেশি হারে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জিপকোড ১১৬৯৭-এর রকওয়েতে করোনার সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি। গত ৭ দিনে এই এলাকায় করোনা পরীক্ষায় ৯ দশমিক ৬ শতাংশের ফল পজিটিভ এসেছে।

বিজ্ঞাপন

১১৪১৬ জিপকোডে কুইন্সের ওজোন পার্ক সংক্রমণের দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে। গত ৭ দিনে এখানে করোনা পরীক্ষায় ৭ শতাংশের ফল পজিটিভ এসেছে। আর স্ট্যাটেন আইল্যান্ডের টটেনভিলেতে করোনা সংক্রমণের এই হার ৬ দশমিক ৩ শতাংশ।

মেয়র অফিসের প্রেস সেক্রেটারি বিল নেইডহার্ড এক টুইট বার্তায় বলেছেন, এটা এখন স্পষ্ট যে, নিউইয়র্ক নগরে করোনার কমিউনিটি সংক্রমণ ঘটছে।

২০ নভেম্বর নিউইয়র্কের মেয়র বিল ডি ব্লাজিও বলেছেন, করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আবারও রেস্তোরাঁর ইনডোর ডাইনিং, জিম ও চুল কাটার সেলুন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। রেস্তোরাঁর আউটডোর ডাইনিংয়ে এক টেবিলে চারজনের বেশি লোক বসতে পারবেন না।

এর আগে ১৮ নভেম্বর এক সংবাদ সম্মেলনে মেয়র বলেছিলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বিপজ্জনক হয়ে ওঠার কারণে নিউইয়র্ক নগরের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১৯ নভেম্বর থেকে আবার ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

রাজ্য কর্মকর্তা সূত্রে জানা গেছে, রাজ্যে ১৯ নভেম্বর ২ লাখ ৫ হাজার জনের করোনা পরীক্ষা করানো হয়েছে। এর মধ্যে ২ দশমিক ৯ শতাংশের ফল পজিটিভ এসেছে। এর আগের দিন ১৮ নভেম্বর এই হার ছিল ২ দশমিক ৭ শতাংশ।

মন্তব্য পড়ুন 0