default-image

আসন্ন মার্কিন নির্বাচনের ব্যাটলগ্রাউন্ড রাজ্য নর্থ ক্যারোলাইনায় ডাকযোগে ভোট গ্রহণের বর্ধিত সময়সীমা কমাতে ট্রাম্প শিবিরের আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট। এর ফলে এই রাজ্যে নির্বাচনের দিন ৩ নভেম্বরের পর আরও নয় দিন ডাকযোগে ভোট গ্রহণে আর কোনো বাধা থাকল না।

সিএনএন-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২৮ অক্টোবর যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট এই রায় দিয়েছেন। এই রায়কে নর্থ ক্যারোলাইনায় ডেমোক্র্যাটদের জয় হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

নির্বাচনের উত্তেজনার মধ্যেই মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে নিয়োগ পাওয়া বিচারপতি অ্যামি কোনি ব্যারেট এই বেঞ্চে ছিলেন না।

প্রতিবেদনে বলা হয়, নর্থ ক্যারোলাইনায় ডাকযোগে ভোট গ্রহণের বর্ধিত সময়সীমা কমাতে রিপাবলিকান দল ও ট্রাম্প শিবির এবং নর্থ ক্যারোলাইনার রিপাবলিকান আইনপ্রণেতারা আবেদন করেছিলেন। তাঁরা আবেদন করেছিলেন, নির্বাচনের দিনের পর তিন দিন পর্যন্ত যেন ডাকযোগে ভোট গ্রহণ করা হয়। সেই আবেদন খারিজ করে মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট এই রায় দিলেন।

বিজ্ঞাপন
default-image

নর্থ ক্যারোলাইনার অ্যাটর্নি জেনারেল জোস স্টেইন এক বিবৃতিতে এই রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, এই রায়ে মহামারির সময় প্রতিটি ভোট গণনা করতে স্টেট বোর্ড অব ইলেকশনসের প্রয়াসকে সমর্থন জানালেন আদালত। এটা আমাদের জন্য অনেক বড় বিজয়।

এর আগে ডাকযোগে আসা সব ভোট আগামী ৩ নভেম্বরের মধ্যে গণনা সম্ভব নয় বলে, নর্থ ক্যারোলাইনার নিম্ন আদালত ভোট গণনার জন্য নির্বাচনের পর আরও নয় দিন সময় বাড়ানোর অনুমতি দিয়েছিলেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এবার সবচেয়ে বেশি আগাম ভোট পড়বে—এমন অনুমান আগে থেকেই করা হচ্ছিল। আদতে হচ্ছেও তাই। নির্বাচনের এখনো পাঁচ দিন বাকি। ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত ৬ কোটি ৪০ লাখের বেশি আগাম ভোট পড়েছে, যা এর আগের রেকর্ড ভেঙে ফেলেছে। আগামী ৩ নভেম্বরের আগে আরও ভোট পড়বে নিশ্চিতভাবেই।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আগাম ভোটের হার দেখে নির্বাচনে কে জয়ী হবেন, তা বলার সুযোগ নেই। তবে এই হার নির্বাচনপূর্ব বিভিন্ন জরিপের ফলকে সমর্থন করছে। ফলে জনমত জরিপগুলোতে উঠে আসা তথ্যের ওপর আস্থা বেড়ে যাচ্ছে।

মন্তব্য পড়ুন 0