যুক্তরাষ্ট্র নির্বাচন

কনভেনশনে ট্রাম্পকে ত্রাণকর্তা হিসেবে উপস্থাপন মেলানিয়ার

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নৈতিকতা লঙ্ঘনের অভিযোগ

কনভেনশনে বক্তব্য দেওয়ার পরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প
কনভেনশনে বক্তব্য দেওয়ার পরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প ছবি: রয়টার্স
বিজ্ঞাপন

নানা বিতর্কের মধ্য দিয়ে কেটেছে রিপাবলিকান দলের জাতীয় কনভেনশনের দ্বিতীয় দিন। ২৪ আগস্ট শুরু হওয়া চার দিনব্যাপী সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন ২৫ আগস্ট কনভেনশন নিয়ে ট্রাম্প সরকারের বিরুদ্ধে নৈতিকতা লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে। সরকারে থেকে রাজনৈতিক দলের কাজ করায় বিতর্ক চাঙা হয়ে উঠেছে।

এ ছাড়া রিপাবলিকান দলের জাতীয় সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পরিবারের লোকজনের ব্যাপক উপস্থিতি নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে। দ্বিতীয় দিনে তাঁর পরিবারের তিনজন বক্তব্য দিয়েছেন। ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প তাঁর স্বামীকে যুক্তরাষ্ট্রের ত্রাণকর্তা হিসেবে উপস্থাপন করেছেন।

মেলানিয়া ট্রাম্প ডোনাল্ড ট্রাম্পের তিনটি প্রধান রাজনৈতিক সংকট নিয়েই কথা বলেছেন। করোনা মহামারি, পুলিশের পীড়নের বিরুদ্ধে আন্দোলন এবং বর্ণবাদ নিয়ে সংবেদনশীলতার সঙ্গে কথা বলেছেন ফার্স্ট লেডি। হোয়াইট হাউসের রোজ গার্ডেন থেকে দেওয়া বক্তব্যে সম্ভাবনার দেশ যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হিসেবে নিজের অভিজ্ঞতা নিয়েও কথা বলেছেন তিনি।

default-image
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের অর্থে বিদেশ সফররত পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও জেরুসালেম থেকে কনভেনশনের জন্য রেকর্ড করে তাঁর বক্তব্য পাঠিয়েছেন। ওই বক্তব্যে পম্পেও বলেছেন, তাঁর পরিবার নিজেদের স্বাধীনতা নিয়ে এখন অনেক বেশি নিশ্চিত ও নিরাপদ মনে করে। এমন হয়েছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কারণেই। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থকে অগ্রাধিকার বিবেচনা করেন। যুক্তরাষ্ট্রকে সবার আগে বিবেচনা করার এ প্রয়াস বিদেশে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে হয়তো জনপ্রিয় করেনি। তবে এ প্রয়াসটি যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থে কাজ করেছে।

কনভেনশনের দ্বিতীয় দিনে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একাধিক প্রথা ও নিয়ম লঙ্ঘন করেছেন বলে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। সম্মেলন থেকে সম্প্রচারিত কার্যক্রমের ফাঁকে প্রাইম টাইমে কয়েকজন নতুন অভিবাসীকে আমেরিকার নাগরিকত্ব প্রদানের আনুষ্ঠানিকতা হোয়াইট হাউস থেকে ট্রাম্প পরিচালনা করেন।

কনভেনশনের দ্বিতীয় দিনে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একাধিক প্রথা ও নিয়ম লঙ্ঘন করেছেন বলে সমালোচনার ঝড় উঠেছে
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আরেক দফা কনভেনশন কর্মসূচিতে উপস্থিত হন। এ পর্যায়ে জন ফন্ডার নামের একজন সাবেক ব্যাংক ডাকাতকে প্রেসিডেন্টের ক্ষমাপত্রে তিনি স্বাক্ষর করেন। ব্যাংক ডাকাতির অভিযোগে জন ফন্ডারকে যে এফবিআই এজেন্ট গ্রেপ্তার করেছিলেন তিনিও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অপরাধ মুক্তির সনদে প্রেসিডেন্ট স্বাক্ষর করার আগেই ফন্ডার বক্তব্য দিয়েছেন। কারাগার থেকে বেরিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ভালো কাজে লোকজনকে সম্পৃক্ত করার সেবামূলক কাজ করেন তিনি। এ সময় ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের বিচার ব্যবস্থার সংস্কারের কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

নতুন অভিবাসীদের নাগরিকত্ব সনদ দিয়ে ট্রাম্প বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত জিনিস যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব। এ নাগরিক হওয়ার মধ্য দিয়ে দায়িত্ববোধের কথাও তিনি স্মরণ করিয়ে দেন তিনি।

ডেমোক্রেট দলের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের এসব কাজ লোক দেখানো। অভিবাসীদের জন্য বিন্দুমাত্র অনুভূতি তাঁর নেই।

হোয়াইট হাউসে উপস্থিত থেকে এসব সরকারি কার্যক্রম নিজের নির্বাচনী প্রচারণার জন্য ব্যবহার করার নৈতিক দিক নিয়েও সংবাদমাধ্যমে কথা বলছেন বুদ্ধিজীবীরা। ইউএস অফিস অব গভর্নমেন্ট এথিকসের সাবেক পরিচালক ওয়াল্টার শাউব এ নিয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছেন, জনগণের সরকার হোয়াইট হাউসকে একটি দলের প্রার্থী মনোনয়নের প্রচারণায় লাগিয়ে নৈতিকতার চরম লঙ্ঘন করেছেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয় দিনের কনভেনশনে মূল বক্তা ছিলেন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। তিনি কোভিড-১৯ সংক্রমিত হয়ে নিহতদের স্মরণ করে বলেন, মানুষ উদ্বিগ্ন। মেলানিয়া যুক্তরাষ্ট্রের জনগণকে কঠিন এ সময়ে ঐক্য ও সংহতির আহ্বান জানান। বর্ণবাদ ও সাম্প্রতিক সহিংসতার কড়া রাজনৈতিক সমালোচনা না করে তিনি বলেছেন, এসব কঠিন বাস্তবতা নিয়ে গর্বিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। ন্যায়বিচারের জন্য লুটপাট বা সহিংসতা না করার জন্য তিনি আহ্বান জানান। দ্বিতীয় দফা নির্বাচিত হয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প দেশের জন্য আরও বেশি কাজ করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলে মেলানিয়া ট্রাম্প তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

দ্বিতীয় দফা নির্বাচিত হয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প দেশের জন্য আরও বেশি কাজ করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ
মেলানিয়া ট্রাম্প, ফার্স্ট লেডি, যুক্তরাষ্ট্র
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

কেনটাকি অঙ্গরাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল ড্যানিয়েল ক্যামেরন ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী জো বাইডেনকে পশ্চাৎপদ চিন্তার লোক হিসেবে উল্লেখ করেন। সামনের দিকে ধাবিত বিশ্বে জো বাইডেন একজন পেছনের চিন্তার লোক বলে তিনি বাইডেনের সমালোচনা করেন। কেনটাকি রাজ্যের প্রথম নির্বাচিত কৃষ্ণাঙ্গ অ্যাটর্নি জেনারেল ক্যামেরন বলেন, ‘আমার গায়ের রং বলে দেয় না, আমি কাকে ভোট দেব। মন আমার নিজস্ব। তাই পছন্দটাও নিজস্ব।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ফ্লোরিডার অ্যাটর্নি জেনারেল পাম বন্ডি ও লে. গভর্নর জেনেথ নিউনেজ কনভেনশনের দ্বিতীয় দিনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সমর্থনে বক্তব্য রাখেন। একই রাজ্যের এ দুজনের উপস্থিতি প্রমাণ করে, আসছে নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জয়ের জন্য সেসব রাজ্যে জয় পেতেই হবে, তাঁর মধ্যে ফ্লোরিডা অন্যতম। ২০০০ সাল থেকে ফ্লোরিডা রাজ্য যুক্তরাষ্ট্রের পুরো নির্বাচনে প্রভাব রাখছে। এ রাজ্যের নির্বাচনী ফলও খুবই কাছাকাছি হয়ে থাকে। এবারেও এমনটি হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আসছে নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জয়ের জন্য সেসব রাজ্যে জয় পেতেই হবে, তাঁর মধ্যে ফ্লোরিডা অন্যতম। ২০০০ সাল থেকে ফ্লোরিডা রাজ্য যুক্তরাষ্ট্রের পুরো নির্বাচনে প্রভাব রাখছে
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দ্বিতীয় ছেলে এরিক ট্রাম্প তাঁর বক্তব্যে বলেন, তাঁর বাবা আমেরিকার ভুলে যাওয়া মানুষদের জন্য নিত্যদিন ভাবিত থাকেন। ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী জো বাইডেনের সমালোচনা করে এরিক ট্রাম্প বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের কর্মজীবী মানুষ সম্পর্কে জো বাইডেন কিছুই জানেন না।

কনভেনশনে ট্রাম্পের মেয়ে টিফানি ট্রাম্পও বক্তব্য দিয়েছেন।

default-image
যুক্তরাষ্ট্রের কর্মজীবী মানুষ সম্পর্কে জো বাইডেন কিছুই জানেন না
এরিক ট্রাম্প
বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন