বিজ্ঞাপন

ব্যাপক হারে করোনার টিকা প্রদান ও সামাজিক বিধিনিষেধ মেনে চলার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে করোনা পরিস্থিতি বর্তমানে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে দীর্ঘস্থায়ী যে প্রভাব পড়েছে তা এখনো অনেক ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কাটিয়ে উঠতে পারছে না। ঋণ নেওয়া অর্থ পরিশোধ করতে না পেরে অনেক প্রতিষ্ঠান দেউলিয়াত্ব ঘোষণা করছে।

সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে এসবিএ আগামী মাসগুলোতে ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে সাহায্য করার জন্য ২০ লাখ ডলার পর্যন্ত আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

করোনা প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর থেকে মার্কিন সরকার নাগরিকদের বেকার ভাতা ও অর্থ প্রণোদনা দেওয়ার পাশাপাশি ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য ঋণ নেওয়ার ব্যবস্থা চালু করে। গত বছরের মার্চ থেকে এ ঋণ প্রকল্প চালু করা হয়। কিন্তু জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময়ে এসে এ প্রকল্পের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ শেষ হয়ে গেলে আর কাউকে ঋণ প্রদান করা সম্ভব হয়নি। চলতি বছরের শুরু থেকে আবার এ প্রকল্প থেকে ঋণ প্রদান করা হচ্ছে।

এসবিএ প্রায় ৮১৩ বিলিয়ন ডলার ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। দেউলিয়া হয়ে যাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলো প্রথমে এ প্রকল্পের আওতাধীন ছিল না। কিন্তু চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে দেউলিয়া হয়ে যাওয়া প্রতিষ্ঠানকেও এ প্রকল্পের আওতায় ঋণ প্রদান করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দেউলিয়া হয়ে যাওয়া প্রতিষ্ঠান ছাড়াও আগে যেসব প্রতিষ্ঠানের ঋণের জন্য আবেদন নাকচ করে দেওয়া হয়েছে তারাও এখন আবেদন করতে পারবে।

প্রশাসনটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিশ্বাস করেন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য আর্থিক সহযোগিতার তহবিল বাড়ানোর ফলে এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করোনা মহামারিতে অর্থনৈতিকভাবে যে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তা কাটিয়ে উঠতে পারবে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন