default-image

মার্কিন টিভি ব্যক্তিত্ব ও অভিনেত্রী কিম কার্দাশিয়ান ও সংগীত তারকা কেনি ওয়েস্ট আদালতে বিয়ে বিচ্ছেদের আবেদন করেছেন।

জানা গেছে, সাত বছরের বিবাহিত জীবনে চার সন্তানের মা-বাবা কার্দাশিয়ান (৪০) ও ওয়েস্ট (৪৩)। সন্তানদের আইনগত অধিকার যৌথভাবে দেওয়ার জন্য আদালতে আবেদন জানান হয়েছে। সমঝোতার মাধ্যমেই তাঁরা এই বিচ্ছেদ ঘটাচ্ছেন।

এটি কেনি ওয়েস্টের প্রথম বিয়ে হলেও কিম কার্দাশিয়ানের ছিল তৃতীয় বিয়ে। এর আগে বাস্কেটবল খেলোয়াড় ক্রিস হ্যাম্পফ্রিজকে বিয়ে করেছিলেন কার্দাশিয়ান। কিন্তু বিয়ের ৭২ দিন পরই তাঁদের বিচ্ছেদ হয়েছিল।

কিম কার্দাশিয়ানের পক্ষে হলিউডের বিচ্ছেদ মামলার জনপ্রিয় আইনজীবী লোরা ওয়াসের তাঁদের বিচ্ছেদের জন্য আদালতে মামলা করেছেন। গত প্রায় এক বছর থেকেই আলোচিত এ দম্পতির বিচ্ছেদ নিয়ে নানা সংবাদ প্রকাশিত হলেও নিজেরা এখনো এ নিয়ে কিছু বলেননি।

বিজ্ঞাপন
default-image

কিম কার্দাশিয়ান মার্কিনদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। শেষবার বিয়ে বিচ্ছেদের পর কেনি ওয়েস্টের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে যান কার্দাশিয়ান। ২০১৩ সালে তাঁরা প্রথম সন্তান আসার ঘোষণা দেন। এর এক বছর পর ২০১৪ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে করেন এ তারকা দম্পতি।

গত মার্কিন নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী হয়েছিলেন র‍্যাপার কেনি ওয়েস্ট। নির্বাচনে ৬০ হাজার ভোট পেয়েছিলেন তিনি। ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জো বাইডেনের আলোচনার ফাঁকে কেনি ওয়েস্টকে নিয়ে কোনো মহলকে তেমন আলোচনা করতে দেখা যায়নি।

গত বছর কেনি ওয়েস্ট প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থিতার ঘোষণা দেওয়ার সময় কার্দাশিয়ানকে তাঁর পাশে দেখা যায়নি। কোনো নির্বাচনী প্রচারেও স্বামীর সঙ্গে তিনি ছিলেন না। মার্কিন সংবাদমাধ্যম বলেছে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা নিয়ে ওয়েস্টের সঙ্গে কার্দাশিয়ানের সম্পর্কের অবনতি ঘটেছিল।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন