বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

এরপর জেনি কাডকে গ্রেপ্তার করে তাঁর বিরুদ্ধে দুটি অভিযোগ আনা হয়। এর একটি হচ্ছে অনুমতি ছাড়া ক্যাপিটল হিলে প্রবেশ এবং অন্যটি সহিংসতা ও লুটপাটে যোগ দেওয়া।

কারাগারে থাকা জেনি কাড বিচারকের কাছে আবেদন জানিয়েছেন, বিচারকাজের ফাঁকে তাঁকে যেন মেক্সিকোতে অবকাশে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়।

বিচারাধীন অবস্থায় বাইরের দেশে অবকাশে যাওয়ার এমন আবেদন নিয়ে বিচারক এখনো কোনো সিদ্ধান্তের কথা জানাননি।

জেনি কাডের আইনজীবী জানিয়েছেন, আদালতে জেনি নিজেকে নির্দোষ দাবি করবেন।

default-image

এদিকে মাথায় মহিষের শিং নিয়ে ওয়াশিংটনের সহিংসতায় উপস্থিত ছিলেন উগ্রপন্থী সংগঠক জ্যাকব চ্যান্সলি। ‘কুয়ানন শ্যামান’ নামে নিজেকে পরিচিত দেওয়া জ্যাকব গ্রেপ্তার হয়ে ওয়াশিংটনের কারাগারে আছেন। তিনি ক্যাপিটল হিলে তাণ্ডবের দিন সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের চেয়ারে বসেছেন। টেবিলের ওপর পা রেখে সেলফি তুলেছেন। এ ছাড়া মাইক পেন্সকে হুমকি দিয়ে একটি চিঠি লিখেও রেখেছিলেন জ্যাকব।

default-image

কারাগারে থাকা জ্যাকব চ্যান্সলি অরগানিক খাবার ছাড়া কিছু খেতে পারছেন না বলে আদালতের এক শুনানিতে জানিয়েছেন। ভিডিও কনফারেন্সে বিচারকের সঙ্গে কথা বলার সময় জ্যাকব চ্যান্সলি জানান, প্রাকৃতিকভাবে উৎপন্ন নয়, এমন কিছু তিনি খেতে পারবেন না। প্রায় অভুক্ত থেকে নয় দিনে শরীর থেকে ২০ পাউন্ড ওজন কমে গেছে বলে বিচারককে জানান জ্যাকব।

এ ঘটনায় জ্যাকব চ্যান্সলির আবেদন মঞ্জুর করেছেন বিচারক জয়েস ল্যাম্বার্থ। তাঁকে ব্যয়বহুল অরগানিক খাবার সরবরাহ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন