default-image

ফ্যাশন দুনিয়া নিয়ত পরিবর্তনশীল। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। বাংলাদেশে তরুণ-তরুণীদের মধ্যে পশ্চিমা ফ্যাশনের প্রতি যেমন ঝোঁক দেখা যায়, তেমনি দেশীয় ফ্যাশনের প্রতিও রয়েছে বিশেষ আকর্ষণ। ঐতিহ্য ও আধুনিক ফ্যাশনের সমন্বয়ে এক মিশ্র ফ্যাশন ট্রেন্ড লক্ষণীয়। বাংলাদেশে ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি এখন বেশ সম্ভাবনাময়। এ নিয়ে কথা হলো বাংলাদেশের টিভি উপস্থাপক ও সাংবাদিক সামিয়া জাহানের সঙ্গে।

শোবিজ ও ফ্যাশন দুনিয়া সম্পর্কে বলতে গিয়ে সামিয়া জাহান বলেন, ‘আমি নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি হিসেবে প্রথমে যখন শোবিজ টুনাইট অনুষ্ঠানের উপস্থাপক হিসেবে দায়িত্ব নিই, তখন অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হয়েছিল।’ ওই অনুষ্ঠানের সাফল্য সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘একটি অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে একটি মিডিয়া কীভাবে দর্শকপ্রিয়তায় চূড়ান্ত সাফল্য অর্জন করতে পারে, তার বড় প্রমাণ যমুনা টেলিভিশনের এই শোবিজ টুনাইট অনুষ্ঠান।’

বিজ্ঞাপন

সামিয়া জাহান এই অনুষ্ঠানের সাফল্যের পুরো কৃতিত্ব তরুণদেরই দিচ্ছেন। তাঁর মতে, টেলিভিশন ছাড়াও অনুষ্ঠানটি ইউটিউবে লাখো দর্শকের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। এটা সম্ভব হয়েছিল নতুনদের সৃষ্টিশীল উপস্থাপনা, অনুষ্ঠান পরিকল্পনা এবং অতিথি ও প্রযুক্তির সমন্বয়ের কারণে। তিনি বলেন, ‘মিডিয়া কর্মী হিসেবে আমি এরই মধ্যে রবিসহ জনপ্রিয় অনেকগুলো প্রতিষ্ঠানের মডেল হিসেবে কাজ করেছি। অভিনয় করেছি নাটকে। কিন্তু সাংবাদিকতা ও উপস্থাপনায় দর্শকদের সঙ্গে সরাসরি সংযোগের যে আনন্দ, তা আর কোথাও পাইনি। এ ছাড়া সাংবাদিকতা ও উপস্থাপনার প্রধান লক্ষ্য থাকে কমিউনিটি বা দেশের মানুষকে জানানো। তার যে আনন্দ ও তৃপ্তি, তা অন্য কোথাও আমি পাইনি।’

সামিয়া জাহান ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতক করেছেন। এ ছাড়া সাংবাদিকতা ও উপস্থাপনা বিষয়ে অনেক কর্মশালায় অংশ নিয়েছেন তিনি। তাঁর ভাষায়, ‘সাংবাদিকতা ও উপস্থাপনা হচ্ছে আমার নেশা। সেটাই আমার আনন্দ, আমার জীবন। যুক্তরাষ্ট্রে মিডিয়া বিষয়ে পড়াশোনার পাশাপাশি এখানকার মিডিয়া সম্পর্কে জানার চেষ্টা করব।’

সামিয়া জাহানের বিনোদন জগতে পথচলার শুরু ২০১১ সালে। ‘ভিট-চ্যানেল আই টপ মডেল’ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে জিতে নেন ‘মিস বিউটি স্কিন’ খেতাব। ‘রবি’, ‘আরএফএল’, ‘রুচি’, ‘ক্লেমন’সহ বেশ কিছু পণ্যের বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবেও কাজ করেন তিনি। মডেলিং ও অভিনয়ের পাশাপাশি উপস্থাপনায় দেখা গেছে মুনকে। চ্যানেল ২৪, একুশে টিভি, দেশ টিভিসহ বেশ কিছু চ্যানেলের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তিনি খণ্ডকালীন উপস্থাপনা করেছেন। সব শেষ যমুনা টেলিভিশনের ‘শোবিজ টুনাইট’ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নিয়মিত উপস্থাপনা শুরু করেন তিনি।

মন্তব্য পড়ুন 0