default-image

নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলের আসন্ন ডেমোক্রেটিক প্রাইমারি নির্বাচনে ডিস্ট্রিক্ট ১৮ (ব্রঙ্কস)-থেকে বাংলাদেশি-আমেরিকান প্রার্থী মির্জা মামুন রশীদের সমর্থনে ফান্ড রেইজিং সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২১ মার্চ সন্ধ্যায় ব্রঙ্কসের স্টার্লিং-বাংলাবাজারের একটি রেস্টুরেন্টে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে ১৯ মার্চ মির্জা মামুন রশীদের নির্বাচনী অফিসের উদ্বোধন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নিউইয়র্ক স্টেট সিনেটর ও ব্রঙ্কস বরো প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী লুইস সেপুলভেদা। মীর সারোয়ার আলীর সভাপতিত্বে এবং ক্যাম্পেইন ম্যানেজার আখতারুজ্জামান ও আজিজুল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে কাউন্সিলম্যান প্রার্থী মির্জা মামুন রশীদ ছাড়াও বক্তব্য রাখেন—কমিউনিটি অ্যাকটিভিস্ট আবদুস সহিদ, রিয়াজ কামরান, জয়নাল চৌধুরী, আবুল কালাম পিনু, মো. মমিনুল ইসলাম, দেলোয়ার হোসেন, ফরিদ আলম ভূঁইয়া, সোনার বলাই, বখতিয়ার রহমান, শহীদুল ইসলাম, মো. মাহে আলম, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন, রন শাহ, সাইম মুক্তাকিম, মোতাহার হোসেন, মোজাম্মেল হোসেন, বিপ্লব, আবদুর রাজ্জাক, কায়সার আহমেদ, মঈন উদ্দিন, কামাল আহমেদ প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

সভায় কাউন্সিলম্যান প্রার্থী মির্জা মামুন রশীদ তাঁর সমর্থনে এ আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশিসহ সব কমিউনিটিকে সেবা দেওয়ার লক্ষ্যেই তিনি সিটি কাউন্সিলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচিত হলে কমিউনিটির অধিকার রক্ষায় সর্বাত্মক ভূমিকা রাখবেন।

বক্তারা বলেন, কমিউনিটির সবাই ঐক্যবদ্ধ হলে সিটি হলে একজন বাংলাদেশি জনপ্রতিনিধি পাঠানো সম্ভব। তাঁকে নিউইয়র্ক সিটির প্রথম বাংলাদেশি-আমেরিকান কাউন্সিলম্যান হিসেবে নির্বাচিত করে কমিউনিটির অধিকার আদায়ের ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান সবাই।

আগামী ২২ জুন নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলের ডেমোক্রেটিক দলীয় প্রাইমারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন