বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রেকর্ড ভাঙা বৃষ্টিপাত ও হ্যারিকেন আইডার প্রভাবে সৃষ্ট বিপজ্জনক বন্যায় দ্রুত অনেক রাস্তা, মহাসড়ক, পাতাল রেলস্টেশন এবং বাড়িঘরকে আচ্ছন্ন করে ফেলে। শহরের কমপক্ষে এক ডজন লোকের মৃত্যু হয়েছে। এসব মৃত্যুর অধিকাংশই কুইন্সের বেসমেন্ট অ্যাপার্টমেন্টের ভেতরে হয়েছে।

নিউইয়র্ক পুলিশ (এনওয়াইপিডি) জানিয়েছে, ৯১১-এ ডাক পেয়ে পুলিশ কর্মকর্তারা কিসেনা পার্কের কাছে ১৫৩-১০ পেক অ্যাভিনিউয়ে প্লাবিত বেসমেন্ট থেকে তিনজনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছেন। জ্যামাইকার ১৮৩ স্ট্রিটের একটি বাসায় একই পরিবারের তিন জনসহ বেশ কয়েকজন বাসিন্দারও মৃত্যু হয়। এ ছাড়া এল্মহার্স্টে একজন, ৬৪ স্ট্রিটে এক শিশুসহ তিনজন, রেগো পার্কের গ্র্যান্ড সেন্ট্রাল পার্কওয়েতে একজন ও ব্রুকলিনের সাইপ্রাস হিলসের রিজউড অ্যাভিনিউয়ে একজন নিহত হয়েছেন।

নিউইয়র্কে স্বল্প আয়ের লোকজন বেসমেন্টে ভাড়া থাকেন। নিউইয়র্ক নগরের অধিকাংশ বাড়ি সমুদ্রপৃষ্ঠের মাত্র ৩০ ফুটের মধ্যে। বাড়ি নির্মাণের সময় বেসমেন্ট রাখা হয়েছে বসবাসের জন্য নয়। বেসমেন্টে বৈধভাবে বসবাসের অনুমতিও দেয় না নগর কর্তৃপক্ষ। তারপরও অধিকাংশ বেসমেন্টেই লোকজন বসবাস করেন। জনবহুল নিউইয়র্কে আবাসন সংকটের কারণেই এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

default-image

কুইন্সে যেকোনো এলাকায় এখন এক বেডরুমের বাসা দুই হাজার ডলারের কমে পাওয়া যায় না। এ ক্ষেত্রে মাসে এক হাজার থেকে ১২০০ ডলার ভাড়ায় বেসমেন্টে বসবাসকেই একমাত্র অবলম্বন ভাবেন লোকজন। বেসমেন্টে বসবাস করা হচ্ছে কিনা—যুক্তরাষ্ট্রের অন্য নগরীগুলোতে কর্তৃপক্ষ তল্লাশি করলেও নিউইয়র্কে কোনো অভিযোগ ছাড়া তল্লাশি করা হয় না।

বেসমেন্টে বসবাস করা শুধু বন্যার কারণেই মারাত্মক এমন নয়। অগ্নিকাণ্ডেও বেসমেন্টে বসবাস করা লোকজনের মৃত্যু হয় সবচেয়ে বেশি।

নিউইয়র্ক নগরে বেসমেন্টে কত লোকজনের বসবাস তার কোনো হিসাব নেই নগর কর্তৃপক্ষের কাছে। নিউইয়র্ক টাইমসের ৩ সেপ্টেম্বরের এক প্রতিবেদনে সংখ্যাটি ‘হাজার হাজার’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

নিউইয়র্ক নগরে এশীয় এবং ক্যারাবিয়ান অঞ্চল থেকে আসা অল্প আয়ের অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করে ছায়া কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট করপোরেশন। এর নির্বাহী পরিচালক এনেটা সিচারান বলেছেন, বেসমেন্টে বসবাসের বিষয়টি নিয়ে এখন গুরুত্বের সঙ্গে ভাবতে হবে। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে এখন ঘন ঘন প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ঘটনা ঘটছে। সব বিতর্ক পাশ কাটিয়ে নিউইয়র্কের বেসমেন্টে বসবাস করার ওপর কড়াকড়ি আরোপের বিষয়ে নিউইয়র্ক নগরকে নতুন করে উদ্যোগ নিতে হবে বলে নিউইয়র্ক টাইমস তাদের প্রতিবেদনে বলেছে। নগরের এমন বেসমেন্টে থাকার কারণে সরকারি সাহায্য বা ত্রাণ পাওয়ার ক্ষেত্রেও লোকজন বঞ্চিত হয়ে থাকেন। বাড়ির মালিক বেআইনি ভাড়া দেওয়ার কারণে সরকারি লোকজনের সামনে তাঁদের দুর্দশা সরাসরি উপস্থাপনের সুযোগ থাকে না।

নিউইয়র্ক নগরের হাউজিং প্রিজারভেশন এবং ডেভেলপমেন্টের মুখপাত্র জেরেমি হাউস বলেছেন, নগর কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে যেকোনো বেআইনি ভাড়াটেদের ত্রাণ দেওয়ার আগে উচ্ছেদের নোটিশ দেওয়া হবে।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন