বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মনোনয়নপত্র দাখিল পর্যবেক্ষণ করতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন—সংগঠনের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, কার্যকরী কমিটির অন্যান্য সদস্য ও উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যসহ সমিতির সাবেক ও বর্তমান কর্মকর্তারা।

মুক্তিযোদ্ধা মুজাহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে ‘মান্নান-মাহবুব’ পরিষদের প্রার্থীরা হলেন—সভাপতি পদে মো. আবদুল মান্নান, সাধারণ সম্পাদক পদে নাজমুল হক মাহবুব, সহসভাপতি পদে ফয়জুর মিয়া, সহসাধারণ সম্পাদক পদে আবদুন নুর হারুন, কোষাধ্যক্ষ পদে আবদুল হান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আবু তৈয়ব মো. তালহা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে অনিক রাজ, দপ্তর সম্পাদক পদে আবদুল হামিদ, প্রচার সম্পাদক পদে আবদুল হাকিম, ক্রীড়া সম্পাদক পদে কিবরিয়া আহমেদ শাহিদ, সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে আক্তারুজ্জামান শাহীন মালিক, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা পদে নাজমা আহমেদ, কার্যকরী সদস্য পদে মো. খলকুর রহমান, জামাল হোসেন, মো. রাজ্জাক মুন্না, নুর উদ্দিন, ফখরুল হক, হোসেন আহমদ ও মো. আবু তাহের।

অপরদিকে মোস্তফা কামালের নেতৃত্বে ‘মিসবাহ-অপু’ পরিষদের প্রার্থীরা হলেন—সভাপতি পদে মিসবাহ আহমদ, সাধারণ সম্পাদক পদে রেজাউল আলম অপু, সহসভাপতি পদে আবুল ফজল লিটন, সহসাধারণ সম্পাদক পদে হোসেন আহমদ, কোষাধ্যক্ষ পদে পারভেজ ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মাহমুদুল কবির রুবেল, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে মো. আবদুল আলীম, দপ্তর সম্পাদক পদে শামসুল আলম শিপলু, প্রচার সম্পাদক পদে মো. আজহার হুসেন রিফাত, ক্রীড়া সম্পাদক পদে হাসান খান, সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে মো. কমর উদ্দিন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা পদে হাফছা ফেরদৌস হোসেন, কার্যকরী সদস্য পদে সাজু আহমদ, সুহেল আহমদ, আবু রাসেল, ফয়ছল আলম, মো. সরোয়ার আহমদ মো. মেহেদী হাসান শিমুল ও ইকবাল হোসেন।

১৩ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশন, কার্যকরী কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের নিয়ে অনুষ্ঠিত যৌথ সভায় নিউইয়র্কের উডহ্যাভেন বুলেভার্দে অবস্থিত ‘জয়া হল’ ভোট গ্রহণের জন্য নির্ধারণ করা হয়।

সভায় অন্যদের মধ্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবদুর রাজ্জাক, কমিশনের সদস্য হিফজুর এম রহমান, জালাল উদ্দিন আহমেদ, কামাল চৌধুরী ও মো. হেলাল উদ্দিন, উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আজিজুর রহমান, মজিবুর রহমান, আজিমুর রহমান বুরহান ও মাসুদুল হক ছানু উপস্থিত ছিলেন।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন