default-image

নিউইয়র্ক নগরীতে বিশেষায়িত স্কুলের নামে বৈষম্যের শিক্ষা কার্যক্রম চলছে—এমন অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিউইয়র্কে চালু থাকা মেধাবী ও ‘গিফটেড’ শিক্ষার্থীদের বিশেষ বিশেষ স্কুলে ভর্তি প্রক্রিয়া বন্ধে এ মামলা করা হয়েছে।

ইন্টিগ্রেটএনওয়াইসি নামের স্বেচ্ছাসেবী একটি সংগঠন ম্যানহাটনের ফেডারেল আদালতে এ মামলা করেছে। মামলায় নিউইয়র্ক রাজ্য, নগর কর্তৃপক্ষসহ নগরীর মেয়র বিল ডি ব্লাজিওকে বিবাদী করা হয়েছে। এর জেরে নিউইয়র্কে বিশেষায়িত স্কুল বন্ধ হতে পারে। আর এসব স্কুলের ভর্তিকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা কোচিং সেন্টারগুলোও অবস্থা নাজুক হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

নিউইয়র্কের শিক্ষাব্যবস্থায় সাম্য ও ন্যায়বিচারের জন্য আন্দোলন করা সংগঠন ইন্টিগ্রেটএনওয়াইসি মামলার আবেদনে বলেছে, বিশেষায়িত স্কুলে ভর্তি প্রক্রিয়ায় বর্ণবৈষম্য বিরাজ করছে। নিউইয়র্ক নগরীর শিক্ষাব্যবস্থায় খুবই প্রারম্ভিক স্তর থেকে শিক্ষার্থীদের প্রতি বৈষম্যের পাঠ্যক্রম যুক্ত করা হচ্ছে বলে।

বৈষম্যের এ ভর্তি প্রক্রিয়ার কারণে অর্থনৈতিকভাবে অনগ্রসর লোকজনকে শ্বেতাঙ্গ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পেরে উঠতে পারে না। কৃষ্ণাঙ্গ, হিস্পানিকসহ বিভিন্ন অভিবাসী গ্রুপগুলোকে বৈষম্যের কারণে শিক্ষা কার্যক্রমের শুরুতেই ঝরে পড়তে হয়। বিশেষায়িত স্কুলে ভালো এবং পর্যাপ্ত শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়। অপরদিকে অন্যান্য স্কুলে পর্যাপ্ত শিক্ষক দেওয়া হয় না।

বিজ্ঞাপন

নিউইয়র্কে বিশেষায়িত স্কুলে ভর্তির জন্য ব্যয়বহুল কোচিং সেন্টার গড়ে উঠেছে। অন্যান্য অভিবাসীদের মতো বাংলাদেশিরাও সন্তানের ভবিষ্যতের ভাবনায় এমন কোচিং সেন্টারে বিপুল অঙ্কের অর্থ ব্যয় করছে। নিউইয়র্কে বহু ক্যাবচালক, হোটেল-রেস্তোরাঁর প্রান্তিক কর্মজীবী বাংলাদেশিকে সপ্তাহের আয়ের অধিকাংশই দিয়ে দিতে হয় কোচিং সেন্টারের পেছনে। প্রবাসে নিজের জন্য নয়, সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য এসেছেন এ চিন্তা সব সময় মাথায় ঘুরপাক খায় অধিকাংশ প্রবাসীদের মধ্যে।

অমানুষিক পরিশ্রম করে সন্তানদের নিউইয়র্কের নামকরা স্কুলে ভর্তি করানোর চেষ্টা করেন প্রবাসীরা। নিজেরা ফুড স্ট্যাম্প বা সরকারি স্বাস্থ্য সুবিধা নিয়েও নিজের সন্তানকে হার্ভার্ড বা এনওয়াইইউর মতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পড়ানোর স্বপ্ন দেখেন।

ইন্টিগ্রেটএনওয়াইসির মামলার রায় বিপক্ষে গেলে নিউইয়র্ক নগরীর স্কুলগুলোতে ভর্তির প্রক্রিয়া পরিবর্তিত হবে। এ নিয়ে কোচিং বাণিজ্যে থাকা প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর প্রভাব পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন