default-image

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ পেরুতে সমবর্তী রাষ্ট্রদূত হিসেবে গত ২৮ মার্চ পরিচয়পত্র পেশ করলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমা। পেরুর পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যালান ওয়াগনার তিজোনের কাছে ভার্চুয়ালভাবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে নিউইয়র্ক থেকে তিনি এই পরিচয়পত্র পেশ করেন।

পরিচয়পত্র পেশ অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা পেরুর সরকার ও জনগণের কাছে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন। তাঁর এ পরিচয়পত্র পেশ অনুষ্ঠান বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদ্‌যাপনের ঐতিহাসিক ক্ষণে অনুষ্ঠিত হলো মর্মে উল্লেখ করেন তিনি।

দ্বিপক্ষীয় ও বহুপক্ষীয়সহ সব ক্ষেত্রে উভয় দেশ ও জনগণের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ চমৎকার সম্পর্ক জোরদারের লক্ষ্যে কাজ করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন রাষ্ট্রদূত ফাতিমা। পেরুর অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি যাতে অব্যাহত থাকে এবং কোভিড-১৯ অতিমারির চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে দেশটি যাতে আরও এগিয়ে যেতে পারে,বাংলাদেশ সরকারের এই শুভকামনা পেরুর পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাছে পৌঁছে দেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

একই দিনে ১৩টি দেশের রাষ্ট্রদূত ভার্চুয়ালভাবে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে পরিচয় পেশ করেন।

কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে পেরুর সরকার রাষ্ট্রদূতদের পরিচয়পত্র পেশের জন্য এই ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। রাষ্ট্রদূত ফাতিমা এখন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি পেরুর অনাবাসী রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করবেন। পরবর্তী সুবিধাজনক কোনো সময়ে পেরুর রাষ্ট্রপতির কাছে পরিচয়পত্র পেশের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হবে।

জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন পেরুতে বসবাসরত বাংলাদেশি নাগরিকদের নিউইয়র্ক থেকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিয়ে থাকে।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন