default-image

নিউইয়র্ক নগরীর কাঠামোগত বৈষম্য দূর করার জন্য ১১ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। নগরীর মেয়র বিল ডি ব্লাজিও জানিয়েছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার ট্রুথ অ্যান্ড রিকনসিলিয়েশনের আদলে নিউইয়র্কের কমিশনটি কাজ করবে।

২৩ মার্চ এক সংবাদ সম্মেলন মেয়র ব্লাজিও বলেন, নিউইয়র্কে বৈষম্য দূর করার জন্য গঠিত কমিশনের নেতৃত্ব দেবেন ফেডারেশন অব প্রোটেস্ট্যান্ট ওয়েলফেয়ার এজেন্সিসের প্রধান নির্বাহী জেনিফার অস্টিন। তাঁর সঙ্গে রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিসহ শিক্ষাবিদ ও কমিউনিটির ব্যক্তিদের যোগ করা হবে।

মেয়র ব্লাজিও বলেন, কাঠামোগত বৈষম্য দূর করার জন্য আমাদের কাছে কোনো মডেল নেই। প্রাতিষ্ঠানিক বৈষম্যকে চিহ্নিত করা, তা স্বীকার করা, ঘটে যাওয়া বিদ্বেষ বৈষম্যের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করা, বৈষম্য নির্মূল করা, পদ্ধতিগত ও আইনের পরিবর্তন সবকিছুকেই বিবেচনায় আনার ওপর কমিশন গুরুত্ব দেবে। গঠিত কমিশন চলতি বছরের মধ্যে প্রতিবেদন প্রদান করবে। কমিশন বিভিন্ন বিশেষজ্ঞের মতামত গ্রহণ করবে এবং যেকোনো আইনগত ও নীতিগত পরিবর্তনের জন্য সুপারিশের ভিত্তিতে বিষয়টি নগরীর নাগরিকদের ভোট প্রদানের জন্য উপস্থাপন করবে।

নিউইয়র্ক নগরীর দ্বিতীয় দফায় থাকা মেয়র বিল ডি ব্লাজিওর মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ডিসেম্বরে। এই সময় কমিশন গঠন করা কীভাবে কাজ করবে—এমন প্রশ্নের জবাবে মেয়র বলেছেন, তিনি আশা করছেন, তাঁর উত্তরসূরিও নগরীর বৈষম্য দূর করার জন্য গঠিত কমিশনের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করবেন।

বিজ্ঞাপন
নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন