default-image

মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে ২১ অক্টোবর শুরু হয়েছিল সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। প্রতি বছর জাঁকজমভাবে পালিত হলেও মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এবারের দুর্গোৎসবে চির পরিচিত সেই আমেজ নেই নিউইয়র্কে। সীমিত পরিসরে মন্দিরের ভেতর হচ্ছে পূজা–অর্চনা। যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হচ্ছে ভক্ত, পুরোহিত, দর্শনার্থীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে।

নিউইয়র্ক নগরের কর্তৃপক্ষের বেঁধে দেওয়া নিয়মে শারীরিক দূরত্ব মেনে ও মাস্ক পরে স্বল্পসংখ্যক ভক্তকে মন্দিরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে। নেই কোনো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও গণ-আরতি। ২৪ অক্টোবর ছিল মহানবমী পূজা। মন্দিরগুলোতে স্বল্পসংখ্যক ভক্তকে এদিন অঞ্জলি দিতে দেখা যায়। দেবীর কাছে অমঙ্গল ও করোনা থেকে মুক্তির জন্য প্রার্থনা করেছেন অনেকে। আজ ২৫ অক্টোবর বিসর্জনের মধ্য দিয়ে নিউইয়র্কে দুর্গাপূজা শেষ হওয়ার কথা।

বিজ্ঞাপন
default-image

প্রবাসী বাঙালিদের জ্যাকসন হাইটসের একমাত্র মন্দির ওম শক্তি মন্দিরের প্রধান ফটকে প্রবেশ নিষেধ নোটিশ দেওয়া হয়েছে। অন্য মন্দির কর্তৃপক্ষও ভক্তদের বাড়িতে থেকেই পূজার আনন্দ উপভোগ করার কথা বলছেন।

কমিউনিটি অ্যাকটিভিস্ট গোপাল সান্যাল বলেন, ‘একটু আনন্দের খোঁজে থাকা আমাদের মতো উৎসবপ্রিয় মানুষেরা আজ করোনার কাছে পরাজিত। এ বছর দুর্গাপূজা হলেও তা অবশ্যই সর্বজনীন শারদীয় উৎসব নয়।’

মন্তব্য পড়ুন 0