default-image

আগামী ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে ডাকযোগে পাঠানো ব্যালট পেপার রাস্তায় ছুড়ে ফেলার অভিযোগে নিউজার্সিতে ডাক বিভাগের একজন কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ৭ অক্টোবর নিকোলাস বিআউচি (২৬) নামের নিউজার্সির ডাকবিভাগের ওই কর্মীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। অরেঞ্জ বোর্ড অব ইলেকশন কমিটির উদ্দেশ্যে পাঠানো অধিকাংশ ভোটার ওয়েস্ট অরেঞ্জ এলাকায় বসবাসকারী।

আদালতে দেওয়া তথ্যে জানা গেছে, সর্বমোট ১ হাজার ৮৭৫টি মেইলের মধ্যে ৬২৭টি প্রথম শ্রেণি, ৮৭৩টি সাধারণ মেইলসহ দুই সার্টিফায়েড মেইল ও প্রায় ৯৯টি বিভিন্ন ঠিকানায় পাঠানো ব্যালটভর্তি মেইল ডাকবিভাগের স্থানীয় কর্মকর্তারা রাস্তা থেকে সংগ্রহ করেন। এ ছাড়া স্থানীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী একজন পদপ্রার্থীর ২৭৫টি প্রচারণা ফ্লায়ার্স নর্থ আরলিংটন এবং ওয়েস্ট অরেঞ্জ এলাকার রাস্তা থেকে ২ অক্টোবর থেকে ৫ অক্টোবরের মধ্যে সংগ্রহ করেন।

সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে অবশ্য বলা হচ্ছে, গ্রেপ্তার হওয়া ডাককর্মীর কর্মকাণ্ড দেখে একে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে নয় বলে প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে। বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে–ছিটিয়ে ফেলা মেইলগুলো আবার যথাযথভাবে সংগ্রহ করে সঠিক ঠিকানায় পাঠানোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রচলিত আইনে কারও মেইল দেরিতে পাঠানোর অভিযোগ প্রমাণিত হলে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এর জন্য সর্বোচ্চ ২০ বছরের কারাদণ্ড অথবা ২ লাখ ৫০ হাজার ডলার জরিমানা হতে পারে। পক্ষান্তরে কারও মেইল বিতরণে বাঁধা প্রদানও শাস্তিযোগ্য অপরাধ, যার জন্য ৬ মাসে জেল হতে পারে অথবা পাঁচ হাজার ডলার জরিমানা হতে পারে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0