নিউইয়র্ক নগরের জ্যাকসন হাইটসের একটি পার্টি সেন্টার ৬ নভেম্বর জাতীয় যুব সংহতি যুক্তরাষ্ট্র শাখার উদ্যোগে জাতীয় যুব দিবস উপলক্ষে এক আলোচনার আয়োজন করা হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় যুব সংহতির সহসভাপতি ফেরদৌস ওয়াহিদ ও পরিচালনা করেন মাসুদ রানা।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জাপার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য আবদুর রহমান, সম্মানিত অতিথি ছিলেন উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ শওকত আলী। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাপার সিনিয়র সহসভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরী, সহসভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য হারিস উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু তালেব চৌধুরী, প্রধান বক্তা যুব সম্পাদক শফি আলম। অনুষ্ঠানে আরও বক্তৃতা করেন শাহাদাত হোসেন, ফারজিন আহমেদ, আবদুল মোতালেব, মো. নাজিম উদ্দিন, আবুল বশর, জিএম ইলিয়াস, শহীদুল হক, রাশেদ আহমেদ প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, দেশে বর্তমান পরিস্থিতিতে স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়া উচিত। যারা স্কুল কলেজে যেতে চায়, তাদের জন্য শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করতে হবে। যারা প্রচলিত পদ্ধতিতে পরীক্ষায় অংশ নিতে চায়, তাদের জন্য পরীক্ষা ব্যবস্থাও করতে হবে।

বক্তারা আরও বলেন, ২৫–৬০ বছর বয়সী মানুষের কর্মক্ষমতার ওপর ভিত্তি করেই একটি দেশের স্বাধীনতা ও স্বনির্ভরতা নিশ্চিত হয়। আমাদের জনসংখ্যার বেশির ভাগ মানুষ ১৫ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে। দুঃখের বিষয় হলেও সত্য, আমাদের এই কর্মক্ষম জনশক্তিকে আমরা কাজে লাগাতে পারিনি। দেশে আজ ৫ কোটির বেশি বেকার, দেশে আজ আইনের শাসন নেই, যুব সমাজ মাদকের দিকে ঝুঁকছে। সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, অবৈধ জায়গা দখলসহ অনেক অসামাজিক কাজে জড়িয়ে পড়ছে। যুব সমাজকে নষ্ট করার দায় কিছু সুবিধাভোগী রাজনৈতিক নেতার।

মন্তব্য পড়ুন 0