default-image

নিউইয়র্কের সাবেক মেয়র রুডি জুলিয়ানির ছেলে অ্যান্ড্রু জুলিয়ানি এবার রাজ্য গভর্নর পদে নির্বাচন করতে পারেন বলে জানিয়েছেন।

সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর নির্বাচনী প্রচারের শুরু থেকেই রুডি জুলিয়ানিকে পাশে রেখেছিলেন। এক সময় নিউইয়র্কের জনপ্রিয় মেয়র ছিলেন রুডি জুলিয়ানি। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর ঘটনার পর বিধ্বস্ত নগরীকে দক্ষতার সঙ্গে সামাল দিয়েছিলেন জুলিয়ানি। এ কারণে যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ তাঁকে ‘আমেরিকার মেয়র’ হিসেবে অভিহিত করেছে।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আইনজীবী হিসেবে নিয়োগ পেয়েও আলোচিত হয়েছিলেন জুলিয়ানি। এ কারণে নিউইয়র্কে এক সময় রুডি জুলিয়ানির শক্ত ভিত্তি থাকলেও, এখন তা অনেকটাই শূন্যের কোঠায়।

অ্যান্ড্রু জুলিয়ানি (৩৫) রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন পাবেন বলে আশা করছেন। বাবা রুডি জুলিয়ানির কারণে অনেক সমর্থন তিনি পাবেন। এ ছাড়া ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘মেক আমেরিকা গ্রেট অ্যাগেইন’ আন্দোলনের সমর্থন তিনি নিশ্চিত পাবেন বলে ধারণা করছেন।

বিজ্ঞাপন

এদিকে নিউইয়র্কের বর্তমান রাজ্য গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমোও আবার নির্বাচন করবেন। এক ডজনের মতো নারীর আনা যৌন হয়রানির অভিযোগের বিষয়ে গভর্নর কুমোর বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। যদিও জনমত জরিপ এখনো তাঁর পক্ষে। তদন্তে কোনো অভিযোগ প্রমাণিত হলে কুমোর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হতে পারে। গত তিন মেয়াদে বিপুল ভোটে অ্যান্ড্রু কুমো নিউইয়র্কে গভর্নর পদে নির্বাচিত হয়ে আসছেন।

নিউইয়র্কে ডেমোক্রেটিক দলের মধ্যে এখন বিভক্তি চরমে। গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো বনেদি ডেমোক্র্যাটদের প্রতিনিধি। কার্যত তাঁরাই রাজ্যের দলীয় নেতৃত্ব ধরে রেখেছেন। নিউইয়র্কের ব্যবসায়ী ও করপোরেট শক্তিগুলোও তাঁদের পক্ষে। সাম্প্রতিক সময়ে ডেমোক্রেটিক দলের অতি উদারনৈতিক পক্ষের সঙ্গে বনেদি ডেমোক্র্যাটদের সংঘাত স্পষ্ট হয়ে উঠেছে স্থানীয় নির্বাচনগুলোতে। অতি উদারনৈতিক হিসেবে পরিচিত নিউইয়র্ক নগরীর মেয়র বিল ডি ব্লাজিওর মেয়াদ এ বছরই শেষ হচ্ছে। নগরীর নির্বাচন আইন অনুযায়ী মেয়র ব্লাজিওর আরেক দফা নির্বাচন করার সুযোগ নেই। এর মধ্যে ডি ব্লাজিও নিজেও ঘোষণা দিয়েছেন তিনি রাজ্য গভর্নর পদে নির্বাচন করতে পারেন।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন