বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আইনে বলা হয়েছে, খাবার সরবরাহ কর্মীদের হোটেল-রেস্তোরাঁর টয়লেট ব্যবহারের সুযোগ দিতে হবে। তাঁদের সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য বিশ্রামের সুযোগ দিতে হবে। খাবার পরিবহনের জন্য সরবরাহকারীদের দূরত্ব নির্ধারণ করে দিতে হবে। গ্রাহকের কাছ থেকে পাওয়া টিপসের উপযুক্ত অংশ কর্মীদের দিতে হবে। সর্বোপরি খাবার পরিবহন কর্মীদের ন্যূনতম মজুরি প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে হবে।

নগর আইন সভায় পাস করা এ আইন প্রস্তাবের সমর্থন জানিয়ে মেয়র বিল ডি ব্লাজিও বলেছেন, প্রান্তিক কর্মজীবীদের জীবনযাত্রা সহজ করার জন্য এমন যেকোনো উদ্যোগ শুধু মানবিকই নয়, অতীব জরুরি বলে তিনি মনে করেন। মূলত অভিবাসী সম্প্রদায় থেকে আসা এসব খাবার পরিবহন কর্মীদের স্বার্থে নিউইয়র্ক নগরের আইনপ্রণেতারা এগিয়ে আসার মধ্য দিয়ে নিউইয়র্ককে একটি মানবিক নগর হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

কোভিড-১৯ মহামারি থেকে বেরিয়ে আসা জনপদে ঘরে বসে খাবার অর্ডার করা এবং ডেলিভারি গ্রহণ একটি স্বাভাবিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। পশ্চিমা জীবনধারার অন্যতম অংশ হোটেল রেস্তোরাঁয় লোকজনের যাতায়াত কমছে স্বাস্থ্য সতর্কতার জন্য। এ কারণে খাবার পরিবহন ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েছেন লাখো প্রান্তিক পরিবহন কর্মী। আইন প্রণয়নের মাধ্যমে নিউইয়র্ক এসব কর্মজীবীদের পাশে দাঁড়িয়েছে।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন