বিজ্ঞাপন

বেনেট নিউইয়র্ক টাইমসকে বলেন, গত বসন্তকালে করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণে যখন রাজ্য হিমশিম খাচ্ছে, ঠিক তখন তিনি অফিসের ভেতর গভর্নরের হাতে এমন নিপীড়নের শিকার হয়েছেন।

গভর্নরের চরম অতিষ্ঠ করা প্রশ্নগুলো ছিল গত বছরের ৫ জুন, যখন গভর্নর তাঁর অঙ্গরাজ্যের রাজধানীতে নিজ কার্যালয়ে শার্লট বেনেটের সঙ্গে ছিলেন। বেনেট বলেন, তিনি আর গভর্নর ছাড়া আর কেউ অফিসে ছিল না। সেই সপ্তাহে অনেক সাক্ষাৎকার ছিল। গভর্নর তাকে নানা ব্যক্তিগত প্রশ্ন করেন, যেমন রোমান্টিক সম্পর্কে জড়াতে বয়স তার কাছে কোনো বাঁধ সাধে কি না?

গভর্নর ক্যুমো এমনকি বেনেটকে বলেন, বিশের কোটায় বয়সের কোনো নারীর সঙ্গে প্রেমে জড়াতে তিনি প্রস্তুত আছেন।

গভর্নরের এমন মন্তব্যে শার্লট বেনেট বলেন, তার স্পষ্ট অনুভূত হয়েছে, কুমো তাঁর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করতে চান।

গভর্নর কুমো গত ২৭ ফেব্রুয়ারি দ্য টাইমসে এক বিবৃতিতে বলেন, তিনি বিশ্বাস করেন, তিনি একজন অভিভাবকের ভূমিকা নিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘মিস বেনেটকে আমি কোনো যৌন প্রস্তাব দিইনি, অশালীন কোনো আচরণও করিনি।’

গভর্নর বলেন, তিনি বিষয়টির নিরপেক্ষ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন এবং কোনো সিদ্ধান্তে আসার আগে তদন্তের ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে তিনি নিউইয়র্কের জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি দেওয়া সর্বশেষ বিবৃতিতে গভর্নর কুমো বলেন, তিনি রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল লাটিসিয়া জেমসকে বিষয়টি তদন্তের আমন্ত্রণ জানাবেন।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন