নিউইয়র্কে করোনায় সংক্রমিত হয়ে মৃত লোকজনের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার জন্য ত্রাণ তহবিল চালু হয়েছে। ১২ এপ্রিল কুইন্সের করোনা প্লাজায় আনুষ্ঠানিকভাবে সিনেটর চার্লস শুমার এবং কংগ্রেসওমেন আলেকজান্দ্রিয়া ওকাসিও-কর্তেজ এ তহবিল ঘোষণা করেছেন।

কোভিড-১৯ এ মৃতদের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া ও দাফনের ব্যয় মেটানোর জন্য পরিবারগুলোকে সহায়তা করবে ফেডারেল সরকার। এখন থেকে ফেডারেল ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি (ফেমা) করোনায় মৃত ব্যক্তিদের জন্য নয় হাজার ডলার পর্যন্ত অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া ব্যয় প্রদান করবে। যাদের পরিবারে একাধিক মৃত্যুর ঘটনা রয়েছে, তাঁরা ৩৫ হাজার ৫০০ ডলার পর্যন্ত ত্রাণের আবেদন করতে পারবেন।

ওকাসিও-কর্তেজ এক টুইট বার্তায় কুইন্সের অলাভজনক সংস্থা ‘এল্মকোর ইয়ুথ অ্যান্ড অ্যাডাল্টের কর্মকাণ্ডের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, এক বছর আগেই আমরা দাফনজনিত ত্রাণের দাবি জানাতে শুরু করেছিলাম। যখন এল্মকোর আমাদের জানিয়েছিল যে, বহু পরিবার প্রিয়জনের দাফন কাফন ও বাড়ি ভাড়া দিতে হিমশিম খাচ্ছে। এল্মকোর ইয়ুথ অ্যান্ড অ্যাডাল্ট স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হিসেবে করোনায় মৃত লোকজনের দাফন কাফনে সহায়তার জন্য কাজ করে আসছে।

এল্মকোরের নির্বাহী পরিচালক সায়েদা ডানস্টন দ্য ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেন, ‘মানুষের সঞ্চয় ক্ষমতা হ্রাস পেয়েছে। এমন অবস্থায় নিকটজনের দাফন কাফনের ব্যয় মেটাতে নিজেদের ওপর ঋণ চাপিয়ে দিতে হচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন

সিনেটর শুমার ও কংগ্রেসওমেন ওকাসিও-কর্তেজ আনুষ্ঠানিকভাবে এই প্রোগ্রামটির সূচনা করেন। ১২ এপ্রিল সকাল নয়টায় কুইন্সের মহামারির অন্যতম কেন্দ্রস্থল এলাকা থেকে ফোনের মাধ্যমে সহযোগিতার জন্য আবেদন নেওয়া শুরু করেছে। সহায়তা পেতে আবেদনের জন্য ৮৪৪-৬৮৪-৬৩৩৩ নম্বরে কল করার জন্য বলা হয়েছে। সকাল নয়টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত (ইস্টার্ন টাইম) এই নম্বর খোলা থাকবে।

ফেমার এই তহবিল পেতে আবেদনকারীকে অবশ্যই মার্কিন নাগরিক বা একজন গ্রিন কার্ডধারী হতে হবে। যারা ইতিমধ্যেই গত বছরের ২০ জানুয়ারির পর থেকে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ জনিত মৃত্যুর কারণে জানাজা বা অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার জন্য অর্থ ব্যয় করেছেন তাঁরাও আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনে পরিবারের ব্যক্তির মৃত্যুর স্থান এবং তাঁর জন্ম তারিখ ছাড়া নিজের জন্ম তারিখ, ঠিকানা, টেলিফোন নম্বর এবং সরাসরি আমানতের জন্য ব্যাংকের তথ্য দিতে হবে। এ ক্ষেত্রে, যে ব্যক্তি মারা গেছেন তাঁর নাগরিকত্বের অবস্থান প্রমাণের প্রয়োজন নেই। ফোনে আবেদনের নম্বর দেওয়ার পরে, আবেদনকারীদের শেষকৃত্যের ব্যয়ের দলিল এবং একটি মৃত্যু সনদ ফেমার পোর্টালে আপলোড বা মেইল করতে হবে। যারা করোনা শুরুর দিকে মৃত্যু সনদ সংগ্রহ করতে পারেননি, তাঁরা নিউইয়র্কের ৩১১ নম্বরে ফোন করে তা সংগ্রহ করতে পারবেন।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন