default-image

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের শুরুর দিকে সবচেয়ে বিপর্যস্ত অবস্থা ছিল নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে। কঠোর লকডাউনের সময়েও প্রতিদিন এ রাজ্যে হাজারের বেশি মানুষ সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন। কিন্তু এত কিছুর পরেও পার্ক ও বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে লোকজনের ঘোরাঘুরি থেমে ছিল না।

করোনায় স্কুল, কলেজ এবং অনেক অফিসের কার্যক্রম অনলাইনে সম্পন্ন করা হয়। অনেকে কার্যত বেকার হয়ে পড়েন। তাই এ অবসর সময়টাকে অনেকেই সামাজিক দূরত্ব মেনে ঘোরার উপযুক্ত সময় হিসেবে বেছে নেয়। আর এ কারণেই নিউইয়র্ক রাজ্যের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানগুলোতে পর্যটক আগমনে নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

২৬ জানুয়ারি দেওয়া এক বিবৃতিতে রাজ্য গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো বলেন, গত বছর নিউইয়র্কের বিভিন্ন পার্ক ও দর্শনীয় স্থানে প্রায় ৭ কোটি ৮০ লাখ পর্যটকের সমাগম ঘটেছে, যা ২০১৯ সালের তুলনায় প্রায় ১০ লাখেরও বেশি।

অন্যান্য অঙ্গরাজ্য থেকে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা, প্রবেশে কঠোর নীতি, আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারী না আসা এবং সর্বোপরি বিভিন্ন স্থানে পর্যটক সংখ্যা সীমিত করে দিলেও রেকর্ডসংখ্যক পর্যটকের আগমন ঘটেছে। লকডাউনে শারীরিকভাবে সতেজ থাকার জন্য অনেকেই পার্কে হাঁটাহাঁটি এবং পরিবার নিয়ে সময় কাটানোকে সবচেয়ে উপযোগী বলে মনে করেছে।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন