default-image

নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলে আসন্ন ডেমোক্রেটিক প্রাইমারিতে ডিস্ট্রিক্ট ১৮ ব্রঙ্কস থেকে কাউন্সিলম্যান প্রার্থী হয়েছেন মির্জা মামুন রশিদ। তিনি আগামী ২২ জুন নির্বাচনে জয়ী করতে বাংলাদেশি কমিউনিটির সবাইকে তাঁর পক্ষে ভোট দিতে আহ্বান জানিয়েছেন।

১৯৮৫ সাল থেকে রিয়েল্টর মির্জা মামুন রশিদ ব্রঙ্কসের বাসিন্দা। তিনি জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি। মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে আছেন দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে।

মির্জা মামুন রশিদের নির্বাচনী ক্যাম্পেইন ম্যানেজার আকতারুজ্জামান বলেন, আমরা মানুষকে শান্তিতে রাখতে চাই। এখানকার মানুষ ঐক্যবদ্ধ। সারা জীবন ভিন্ন কমিউনিটির প্রার্থীকে ভোট দিয়েছি। এবার নিজেদের মানুষকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করতে চান ব্রঙ্কসের ভোটাররা। তাই প্রার্থী হয়েছেন মির্জা রশিদ। তিনি যেন জয়ী হন আমরা সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। এ ছাড়া স্প্যানিস ও অন্যান্য কমিউনিটির লোকজনও আমাদের প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছেন। বিশেষ করে নিউইয়র্ক সিনেটর লুইস সেপুলভেদা সমর্থন দিয়েছেন। তাই জয়ের ব্যাপারে ভোটারদের মাঝেও আশার আলো সঞ্চার হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ব্রঙ্কসের বাংলা ক্লাবের সভাপতি মৌমিনুল ইসলাম বলেন, মির্জা রশিদ অত্যন্ত বিনয়ী মানুষ। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনায় সাধারণ মানুষকে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেছেন তিনি। এই ধরনের মানুষ নির্বাচিত হলে নিঃসন্দেহে কমিউনিটির লোক উপকৃত হবে। কমিউনিটি অ্যাকটিভিস্ট আবুল কালাম বলেন, ব্রঙ্কসে আমাদের কমিউনিটিতে একজন দেশি জনপ্রতিনিধি দরকার। যেন তিনি ওপরের মহলে আমাদের কথা বলতে পারেন। তাই মির্জা রশিদের কোনো বিকল্প নেই।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা মামুন রশিদ বলেন, আমি এই কমিউনিটির সঙ্গে দীর্ঘদিন কাজ করে যাচ্ছি। এখানে অনেক বিষয় আছে, যা নির্বাচিত প্রতিনিধি ছাড়া সমাধান করা কঠিন। প্রতিশ্রুতি দিতে চাই না। কাজ করে যেতে চাই। কাজের গতিশীলতা রক্ষা ও কমিউনিটির উন্নয়নে সবার ভোট প্রার্থনা করেন তিনি।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন