বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাড়ির ইনস্যুরেন্স পলিসিতে বন্যা কিংবা সাইক্লোন দাবি অন্তর্ভুক্ত না থাকলেও প্রথমে ইনস্যুরেন্স কোম্পানিতে দাবি উত্থাপন করতে হবে। ইনস্যুরেন্স কোম্পানি কিংবা এজেন্টের কাছে ক্ষতির পরিমাণ জানাতে হবে। ইনস্যুরেন্স কোম্পানির নির্ধারিত একজন সমন্বয়কারী পুরো প্রক্রিয়ায় নিয়োজিত থাকবেন। সমন্বয়কারী বাড়িতে সশরীরে উপস্থিত থেকে ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করবেন। এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে কিছুদিন সময় প্রয়োজন। এ জন্য ক্ষয়ক্ষতির প্রমাণাদি ছবি কিংবা ভিডিও করে রাখা প্রয়োজন। বন্যার পানিতে ডুবে নষ্ট হয়ে যাওয়া জিনিসপত্র প্রমাণ হিসেবে রাখতে হবে। বাড়ির স্যুয়ারেজ লাইন কিংবা মূল স্তম্ভ ক্ষতি হয়েছে কিনা দেখতে হবে। প্রয়োজনীয় প্রমাণসহ ফেমায় আবেদন করা যাবে। আবেদন করার আগে যাচাই করে দেখতে হবে ওই কাউন্টি কিংবা শহর আবেদন করার আওতাধীন কিনা। ফেমার সহায়তা পাওয়ার যোগ্য হলে সাময়িক বাসস্থান কিংবা অন্যান্য প্রয়োজনীয় খাতে ব্যবহার করা যাবে। ফেমা সর্বোচ্চ ৩৩ হাজার ডলার পর্যন্ত বাড়ি মেরামতে সহযোগিতা দিয়ে থাকে। এ ছাড়া বাড়ির মালিক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এসবিএর সহায়তায় জন্য আবেদন করতে পারবেন। আপনার এরিয়া যদি আবেদনের আওতায় না থাকে, তাহলেও আবেদন করতে পারবেন। এলাকাটি অন্তর্ভুক্ত হওয়া মাত্রই সহায়তা পাওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে।

নিউইয়র্ক স্টেট ফাইন্যান্স সার্ভিস বাড়ির ন্যূনতম ইনস্যুরেন্স থেকে বন্যার কারণে ক্ষতিগ্রস্তকে আলাদা করেছে, এ জাতীয় দাবি ইনস্যুরেন্স কোম্পানি পূরণ করে না। এ জন্য অতিরিক্ত বন্যা ইনস্যুরেন্স গ্রহণ করতে হবে। বন্যা প্রবণ এলাকায় বাধ্যতামূলক বন্যা ইনস্যুরেন্স গ্রহণ করতে হবে। বাড়িতে বন্যা ইনস্যুরেন্স থাকলে কোম্পানিকে জানাতে হবে, দাবি সমন্বয়কারী সরেজমিনে পরিদর্শন করে রিপোর্ট প্রদান করেন। পরিদর্শনের পর কোম্পানি থেকে অগ্রিম অর্থ গ্রহণ করে সংস্কার কাজ শুরু করা যেতে পারে। দাবি নিষ্পত্তির সময় অগ্রিম অর্থ সমন্বয় করা হয়। বন্যা ইনস্যুরেন্স থাকলেও ফেমা থেকে সহায়তার জন্য আবেদন করা যাবে। ফেমা সব সময়ই ইনস্যুরেন্স কোম্পানির সঙ্গে যথাযথ প্রমাণাদিসহ দাবি উত্থাপন করার কথা বলে থাকে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কার্পেট, ফ্লোর, দেয়াল ইত্যাদি সংস্কার করার আগে নমুনা সংরক্ষণ করে রাখতে হবে। স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত জিনিসপত্র দ্রুত ফেলে দিতে হবে। দাবি সমন্বয়কারী দাবি নিষ্পত্তির জন্য টাকা-পয়সা, ঘুষ দাবি করতে পারবেন না কিংবা ক্ষতির পরিমাণ থেকে বাদযোগ্য খরচ আদায় করতে পারেন না। বাড়ি পরিদর্শনের জন্য দাবি সমন্বয়কারীকে আলাদা কোনো ফি দিতে হবে না। দাবি নিষ্পত্তির জন্য সমন্বয়কারী সঠিক নির্দেশনা প্রদান করবেন এবং সংস্কার কাজের জন্য সম্ভাব্য খরচের তালিকা তৈরি করতে সহায়তা করবেন। এসব বিবেচনায় নিয়ে ক্ষতির পরিমাণ অনুযায়ী ও ইনস্যুরেন্সের আওতাভুক্ত হিসাবে ক্ষতির টাকা প্রদান করা হবে। বাড়িতে মর্টগেজ থাকলে বাড়ির মালিক ও মর্টগেজ কোম্পানির নামে ক্ষতিপূরণের চেক ইস্যু করা হবে।

নিউইয়র্ক শহরে বেসমেন্ট অ্যাপার্টমেন্ট সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মৃত্যুর ঘটনাও ঘটছে বেশ কয়েকটি বাড়ির বেসমেন্টে। দুর্ঘটনায় পতিত বাড়ির মালিকেরা ফৌজদারি মামলার সম্মুখীন হতে পারেন। নিউইয়র্ক শহরের মেয়র চলতি বছরের শেষ পর্যন্ত বেসমেন্ট অ্যাপার্টমেন্টের জন্য তা না করার ঘোষণা দিয়েছেন। শহরের অধিকাংশ বেসমেন্টের লোকজন বসবাসের অনুমতি নেই। বেসমেন্টে কোনো রান্নাঘর কিংবা শোয়ার ঘর করার অনুমতি নেই। বেসমেন্ট অ্যাপার্টমেন্টে বৈধভাবে বসবাসের অনুমতি নেই। বাড়ির মালিকদের বেসমেন্ট অ্যাপার্টমেন্টে ভাড়া প্রদান করার ক্ষেত্রে সচেতন হতে হবে।

ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির মালিকেরা ফেমার ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদন করার লিংক পাবেন। এ ব্যাপারে সহায়তায় জন্য ১-৮০০-৬২১-৩৩৬২ নম্বরে ফোন করে তথ্য নিতে ও আবেদন করতে পারেন। ইনস্যুরেন্স কোম্পানি সংক্রান্ত বিষয়ে ১-৮৭৭-৩৩৬-২৬২৭ নম্বরে ফোন করা যেতে পারে।

নিউইয়র্ক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন