default-image

দুঃখজনক সংবাদ: বৈদ্যুতিক গাড়িগুলো বিশ্বকে বাঁচাতে পারবে না। তবে বিল গেটস তাঁর সদ্য প্রকাশিত বই ‘হাউ টু অ্যাভয়েড অ্যা ক্লাইমেট ডিজাস্টার’–এ আমরা যদি সঠিক পদক্ষেপ না নিই, তবে কী হতে পারে—তা নিয়ে বেশ কিছু সুন্দর ধারণা দিয়েছেন।

যৌক্তিক, জোরালো ও শেষ পর্যন্ত আশাবাদী এই বইটি একজন উদ্ভাবকের কাছ থেকে উদ্বেগজনক আহ্বান, যিনি বিশ্বাস করেন, আমাদের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য আমাদের সঠিক জিনিষ রয়েছে এবং এই বিষয়টি বাস্তবায়ন করতে অতি উত্তেজিত আবেগগুলো মুছে ফেলে তাঁর নতুন চিন্তাভাবনাগুলো বাস্তবায়ন করার প্রয়োজন রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এই জরুরি, প্রামাণ্য বইটিতে বিল গেটস জলবায়ু বিপর্যয় এড়াতে বিশ্ব কীভাবে শূন্য গ্রিনহাউজ গ্যাস নির্গমন করতে পারে, তার জন্য একটি বাস্তবায়নযোগ্য পরিকল্পনার বর্ণনা দিয়েছেন।

বিল গেটস জলবায়ু পরিবর্তনের কারণ ও প্রভাব অনুসন্ধানের জন্য এক দশক অতিবাহিত করেছেন। তিনি পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, জীববিজ্ঞান, প্রকৌশল, রাষ্ট্রবিজ্ঞান ও অর্থ বিশেষজ্ঞের সহায়তায় পরিবেশের বিপর্যয় বন্ধে কী কী করা উচিত, সেদিকে মনোনিবেশ করেছেন।

এই বইয়ে তিনি কেবল গ্রিনহাউস গ্যাসের একেবারে শূন্য নির্গমনের জন্য আমাদের কী কাজ করতে হবে তা ব্যাখ্যা করেননি, এই গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য অর্জনে আমাদের কী কী করা দরকার, তাও বিশদভাবে জানিয়েছেন।

আমরা যে চ্যালেঞ্জগুলোর মুখোমুখি হচ্ছি, বিল গেটস বইয়ে তার স্পষ্ট বর্ণনা দিয়েছেন। নতুনত্ব সম্পর্কে তাঁর উপলব্ধি ও বাজারে নতুন ধারণা আনতে কী কী করতে হবে তার বর্ণনা দিয়েছেন। যেসব অঞ্চলে ইতিমধ্যে গ্রিনহাউজ প্রযুক্তি গ্যাস নির্গমন হ্রাস করতে সহায়তা করে চলেছে, কোথায় এবং কীভাবে বর্তমান প্রযুক্তি আরও কার্যকরভাবে কাজ করার জন্য তৈরি করা যেতে পারে, তিনি তার উল্লেখ করেছেন।

পরিশেষে, মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাতা গ্রিনহাউস গ্যাসের শূন্য নিঃসরণের লক্ষ্য অর্জনের জন্য একটি সুনির্দিষ্ট, ব্যবহারিক পরিকল্পনা পেশ করেন, যা কেবল সরকারগুলোর গ্রহণ করা উচিত এমন নীতিই নয়, বরং আমরা আমাদের সরকার, আমাদের নিয়োগকর্তা এবং নিজেদের এই গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগে জবাবদিহির জন্য কী করতে পারি তাও ব্যাখ্যা করেছেন।

বিল গেটস যেমন স্পষ্ট করে দিয়েছেন, শূন্য নির্গমন অর্জন করা সহজ কাজ হবে না, তবে আমরা যদি নির্ধারিত পরিকল্পনাটি অনুসরণ করি, তাহলে এটি আমাদের লক্ষ্যের মধ্যে বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে।

বিজ্ঞাপন
সাহিত্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন