এমএসএনবিসির হোস্ট ম্যাথিউসের পদত্যাগ

বিজ্ঞাপন
default-image

এমএসএনবিসি তারকা ক্রিস ম্যাথিউস একজন আমেরিকান রাজনৈতিক ভাষ্যকার। সোমবার রাতে তাঁর পরিচালিত ‘হার্ডবল’–এর হোস্ট পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে তিনি সহকর্মী ও দর্শকদের অবাক করে দিয়েছিলেন।
ম্যাথিউস তাঁর অনুষ্ঠানের প্রথমেই ঘোষণা দিয়েছিলেন, ‘আমি অবসর নিচ্ছি। এমএসএনবিসিতে এটিই আমার শেষ ‘হার্ডবল’ এবং স্পষ্টতই এটি রাজনীতিতে আগ্রহের অভাবের জন্য নয়।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি আমার কুড়ি বছরের প্রতিটি মিনিট ‘হার্ডবল’–এর হোস্ট হিসেবে পছন্দ করেছি। এই সুযোগ খুব বেশি লোক পায় না।’
ম্যাথিউজ বলেন, ‘আমি আমার প্রযোজকদের সঙ্গে কাজ করতে পছন্দ করতাম এবং আমরা কীভাবে আমাদের কাজকে আরও এগিয়ে নেওয়া যায়, সে বিষয়ে সব সময় আলোচনা করতাম। আমি আমার দর্শকদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করতে পছন্দ করি। এনবিসির সঙ্গে কথোপকথনের পর আমি স্থির করেছিলাম, আজ রাতেই আমার শেষ ‘হার্ডবল’ হবে। কেননা আমি নতুন প্রজন্মের তরুণদের জায়গা করে দিতে চাই, যারা এখন রাজনীতি, মিডিয়াসহ সব ক্ষেত্রে সমানভাবে বিচরণ করছে।
এমএসএনবিসি এ বিষয়ে মন্তব্য করার জন্য ফক্স নিউজের অনুরোধে সঙ্গে সঙ্গে সাড়া দেয়নি। পরে অবশ্য এমএসএনবিসির ম্যানেজমেন্ট কমিটির সঙ্গে জড়িত একজন জানান, পদত্যাগের আগে ম্যাথিউস এনবিসি ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে কথা বলেছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে, সম্প্রতি তাঁর বিরুদ্ধে উঠে আসা বিভিন্ন বিতর্ক তার অবসর গ্রহণের সিদ্ধান্তকে আরও ত্বরান্বিত করেছে। দীর্ঘদিনের এমএসএনবিসি হোস্টের আগে তাঁর শোতে উপস্থিত সাংবাদিকের দ্বারা তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির নতুন দাবিগুলোর উল্লেখ করেছিলেন।
ম্যাথিউস বলেন, একজন নারীকে নিয়ে আমিসহ কিছু পুরুষ হয়তো একবার ভুলভাবে কিছু বলেছিলাম, যা কখনোই ঠিক ছিল না। অতীতে এই জাতীয় মন্তব্য করার জন্য আমি দুঃখিত।’ ম্যাথিউস তাঁর দর্শকদের উদ্দেশ্যে বলেন, তিনি রাজনীতি সম্পর্কে তাঁর লেখা ও কথা বলা চালিয়ে যাবেন এবং যাদের প্রতি রাতে ‘হার্ডবল’ দেখার অভ্যাস হয়ে গেছে, তারা যেমন তাঁকে মিস করবে, তিনিও তেমনি তাদের অনেক মিস করবেন।
গত মাসে ম্যাথিউস নেভাদায় সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্সের জয়কে ১৯৪০ সালে ফ্রান্সের নাৎসিদের বিজয়ের সঙ্গে তুলনা করে তীব্র সমালোচনা মুখে পড়েন। পরে অবশ্য তিনি এই মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন